1. admin@banglarkagoj.net : admin :

মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন

সিটি নির্বাচনে বিতর্কিতদের ভোটের মাঠে দেখা যাচ্ছে : ন্যাপ মহাসচিব

সিটি নির্বাচনে বিতর্কিতদের ভোটের মাঠে দেখা যাচ্ছে : ন্যাপ মহাসচিব

ঢাকা : ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে কিছু এলাকায় স্থানীয় সন্ত্রাসীদের প্রকাশ্যে আনাগোনা শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

তিনি বলেন, নির্বাচনী মাঠে বিতর্কিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থীকে ঘিরে ভোটের মাঠে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের আশঙ্কা করছে জনগন। যার ফলশ্রুতিতে প্রধানমন্ত্রীর দুর্নীতি ও সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ছে। বিতর্কিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের সঙ্গে মাদক, চাঁদাবাজি ও দখলসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত সন্ত্রাসীদের সখ্য রয়েছে। তাঁদের কয়েকজনের সঙ্গে বিদেশে পলাতক শীর্ষ সন্ত্রাসীদেরও যোগাযোগ রয়েছে।

শনিবার (১১ জানুয়ারী) বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট এসোসিয়েশন মিলনায়তনে ন্যাশনাল পিপলস্ স্বেচ্ছাসেবক পার্টি’র সম্মেলনে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ন্যাশনাল পিপলস্ স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক মোঃ এমাদুল হক রানার সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টি-এনপিপি ও ও এর নেতৃত্বাধীন জোট ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (এনডিএফ) চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ ছালাউদ্দিন ছালু। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন এনপিপি’র মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল হাই মন্ডল, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এনপিপি’র প্রেসিডিয়াম সদস্য মিসেস খালেকুজ্জামান খান দুদু, মোঃ ইদ্রিস চৌধুরী, শেখ আবুল কালাম, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর সভাপতি মোঃ আনিসুর রহমান দেওয়ান।

সম্মানিত অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন এনডিএফ শরিক জাগপা চেয়ারম্যান একেএম মহিউদ্দিন বাবলু, ন্যাপ ভাসানী চেয়ারম্যান আবদুল হাই সরকার, ডিপিবি’র চেয়ারম্যান এডভোকেট জাহাঙ্গির আলম।

তিনি বলেন, বেশ জোড়ালোভাবেই রাজধানীর ক্লাবপাড়ায় অবৈধ ক্যাসিনো বাণিজ্য এবং টেন্ডারবাজিসহ নানা দুর্নীতির বিরুদ্ধে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান শুরু হয়েছিল। দলীয় প্রভাব কাজে লাগিয়ে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের দুনীর্তির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর অনমনীয় মনোভাব সর্বস্তরে প্রশংসিত হয়েছিল। দেশবাসীর পাশাপাশি দল থেকে আগাছা নির্মূলের এ অভিযানে সবার মধ্যে তৈরি করেছিল উৎসাহ উদ্দিপনা। এতে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে সরব হয়ে ওঠেন অনেকেই। কিন্তু দূর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে আলোচিত অভিযান কি হঠাৎ করেই থমকে গেছে? এ অভিযান কী ক্যাসিনো পর্যন্ত সীমাবদ্ধ? জনমনে এখন এমন প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, অপ্রিয় হলেও সত্য, দেশটা ভরে গেছে দুর্নীতি, লুটপাট, খুন, চুরি, ধর্ষণ, ডাকাতি, ভেজাল পণ্য আর ভেজাল খাদ্যে। এসবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া কঠিন একটি কাজ। তবে কাজটি কঠিন হলেও অসম্ভব যে নয় তা দেখিয়ে দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। সুতরাং প্রধানমন্ত্রীকে এ অভিযান বন্ধ করলে চলবে না। দেশের স্বার্থে, জাতির স্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত রাখতে হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2019 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com