1. banglarkagoj@gmail.com : admi2018 :

বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:৩৬ অপরাহ্ন

দুই মামলায় খালেদার জামিন শুনানি ২৫ এপ্রিল

দুই মামলায় খালেদার জামিন শুনানি ২৫ এপ্রিল

ঢাকা : যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়া ও মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে দায়ের করা পৃথক দুই মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি আগামী ২৫ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকার পৃথক দুই মহানগর হাকিমের আদালতে এ শুনানি হবে।

এদিকে রোববার যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলাটি জামিন শুনানির জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরী তা পিছিয়ে ২৫ এপ্রিল ধার্য করেন।

জামিন শুনানির বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার বলেন, গত ১২ এপ্রিল ঢাকা মহানগর হাকিম আহসান হাবীবের আদালতে যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়ার মামলায় আর খুরশীদ আলমের আদালতে জন্মদিন পালনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে জামিন শুনানির আবেদন করি। যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়ার মামলাটি রোববার শুনানির জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু আদালত তা পিছিয়ে ২৫ এপ্রিল ধার্য করেছেন। আর জন্মদিন পালনের মামলাটির ধার্য তারিখ রয়েছে ২৫ এপ্রিল। ওই আদালতে ওইদিন জামিন শুনানি হবে। দুটি মামলায় ঢাকার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে রোববার যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলাটিতে খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করেতে পারেনি। এজন্য আগামী ২৫ এপ্রিল গ্রেপ্তার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী স্বীকৃত স্বাধীনতা বিরোধীদের গাড়িতে জাতীয় পতকা তুলে দিয়ে দেশের মানচিত্র এবং জাতীয় পতাকার মানহানি ঘটানোর অভিযোগে আদালতে একটি মানহানির মামলা দায়ের করেন। ওইদিন ঢাকা মহানগর হাকিম রায়হানুল ইসলাম তেজগাঁও থানার ওসিকে মামলার তদন্তের নির্দেশ দেন। মামলায় খালেদা জিয়া ও জিয়াউর রহমানকে আসামি করা হয়।

এরপর গত বছর ২৫ ফেব্রুয়ারি তেজগাঁও থানার ওসি (তদন্ত) এবিএম মশিউর রহমান মামলার প্রতিবেদন দাখিল করেন। এরপর তা আমলে নিয়ে প্রাক্তন এ প্রধানমন্ত্রীকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেন আদালত।

প্রচলিত আইনে মৃত ব্যক্তির বিচারের সুযোগ না থাকায় প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে অব্যাহতি প্রদানের সুপারিশ করা হয়। মামলাটিতে গত বছরের ১২ অক্টোবর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রাক্তন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম ২০১৬ সালের ৩০ আগষ্ট ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলাটি করেন। মামলাটিতে ২০১৬ সালের ১৭ নভেম্বর আদালত খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!