মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:১৭ অপরাহ্ন

দোতলার কার্ণিসে দাড় করিয়ে বিদ্যালয়ের শিশুদের দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ!

দোতলার কার্ণিসে দাড় করিয়ে বিদ্যালয়ের শিশুদের দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ!

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) : প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের গাছ বেয়ে উপরে তুলে দ্বিতল ভবন ঘষাঁ-মাজা ও পরিস্কারের মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করালেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
আজ (১৬ এপ্রিল) সোমবার শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার গাছগড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এমন ঘটনা ঘটে। এর পরপরই শিশুদের ঝুঁকিপূর্ণ কাজের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায় এবং সমালোচনার ঝড় ওঠে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দ্বিতল বিশিষ্ট বিদ্যালয় ভবন রং করার জন্য সোমবার ভবনের দেয়াল পরিস্কারের কাজ করার উদ্যোগ নেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তারা শ্রমিক না নিয়ে বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে পড়াশোনা করতে আসা কোমলমতি ছোট ছোট শিশু শিক্ষার্থীদের দেয়াল পরিস্কারের কাজে লাগিয়ে দেন। অনেক শিশু শিক্ষার্থীকে গাছ বেয়ে দো-তলার কার্ণিসে বসে বা দাড়িয়ে দেয়াল পরিস্কার করার দৃশ্য দেখা গেছে। অনেক শিশুকে দোতলার গ্রিলে ঝুলেও এ কাজ করতে দেখা গেছে। আর এ কাজে তদারকি করেছেন বিদ্যালয়ের শিক্ষকেরাই। শিশুদের দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করানো আইনত অপরাধ বলে গণ্য করা হলেও খোদ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই শিক্ষকদের দ্বারা এমন কাজ করানোয় বিষয়টি বিভিন্ন মহলে সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। অনেকেই জানিয়েছেন, এভাবে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করতে গিয়ে কোন শিক্ষার্থী দুর্ঘটনার শিকার হলে তখন কি হবে? এর দায়-দায়িত্ব কে নেবে?

এদিকে এমন ঝুঁকিপূর্ণ কাজের ছবি মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ফেসবুকেও এ নিয়ে শুরু হয় তীব্র সমালোচনা।
অবশ্য শিশুদের দিয়ে এমন কাজ করানোর বিষয়টি অস্বীকার করে প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, আমি বিকেল পর্যন্ত বিদ্যালয়ে ছিলাম। শিশুদের দিয়ে এমন কোন কাজ করানো হয়নি। তিনি আরও বলেন, আমি একজন শিক্ষককে ফোন করে জানতে পারলাম, ওরা (শিশুরা) নাইন-টেনের শিক্ষার্থী।
এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফজিলাতুন্নেছা জানান, বিষয়টি অবশ্যই অপরাধ। আমি খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!