শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন

লেবাননে ‘বাংলাদেশ : দ্য জয় অব লাইফ’ শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী

লেবাননে ‘বাংলাদেশ : দ্য জয় অব লাইফ’ শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী

প্রবাসের ডেস্ক : লেবাননে বাংলাদেশ দূতাবাস বৈরুতের উদ্যোগে প্রথমবারের মতো ‘বাংলাদেশ : দ্য জয় অব লাইফ’ শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যা ৬টায় লেবাননের বিখ্যাত আর্ট গ্যালারি ‘ভিলা আউদি’তে প্রদর্শনীর যৌথভাবে উদ্বোধন করেন লেবাননের সাবেক প্রেসিডেন্ট মিশেল স্লেইমান ও প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরির প্রতিনিধি সাবেক মন্ত্রী আম্মার হৌরি এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবদুল মোতালেব সরকার।

প্রদর্শনীতে প্রফেসর বাসাম লাহুদের একক আলোকচিত্র প্রদর্শিত হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বৈরুত দূতাবাসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার বলেন, ‘লেবাননে দেড় লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি কাজ করলেও বাংলাদেশ সম্পর্কে লেবানিজদের তেমন কোনো সম্যক ধারণা ছিল না। তাদের ধারণা ছিল, বাংলাদেশ একটি গরীব দেশ। তাই বাংলাদেশিরা বিভিন্ন কোম্পানি বা গৃহকর্মীর ভিসায় লেবানন এসে কাজ করে।বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের অর্জন সম্বন্ধে লেবানিজদের তেমন কোনো ধারণা ছিল না। আমি দূতাবাসে যোগদানের পরেই এই বিষয়ে কাজ শুরু করি। একদিকে আমরা যেমন লেবাননে ব্যবসা বিনিয়োগ বাড়াতে কাজ করছি, অন্যদিকেও আমরা লেবাননে থেকে বাংলাদেশে পর্যটক পাঠাতে কাজ করছি। এই লক্ষ্যে আমরা লেবানন ও বাংলাদেশ-এই দুই দেশের পর্যটন সংস্থাগুলোর সঙ্গে একটি সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করেছি।’

lebanon1

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের ট্যুরিজম লেবাননে সম্প্রসারণের লক্ষ্যে লেবাননের শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ লেবানিজ আমেরিকান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর বাসাম লাহুদকেকে বাংলাদেশে পাঠাই এবং তিনি সেখানে প্রায় ১০ দিন অবস্থান করে বাংলাদেশের কক্সবাজার, খুলনার সুন্দরবনসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন পর্যটনস্থানগুলো দর্শন করে নিজের ক্যমেরায় বন্দী করে লেবাননে ফিরে আসেন। তার সংগৃহীত অজস্র ছবির মধ্যে ৫০টি ছবি বাছাই করে আমরা এখানে প্রথমবারের মতো আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করি। আমরা আজকে এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে বাংলাদেশকে লেবানিজদের কাছে তুলে ধরতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত।’

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘আমাদের দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টা সফল হয়েছে। আমরা আশা করছি এরপর থেকে বাংলাদেশে ট্যুরিজম শুরু হবে এবং আগামীতে লেবাননের পর্যটকদের সংখ্যা বাংলাদেশে উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাবে। বাংলাদেশ সম্পর্কে তাদের যে একটা নেতিবাচক ধারণা ছিল, আজকের প্রদর্শনীতে এই ছবিগুলো দেখে তাদের সেই ধারণা অনেকটাই পাল্টে যাবে বলে আশা করছি। প্রদর্শনীতে আসা প্রায় কয়েকশ’ দর্শক ছবিগুলো দেখে বাংলাদেশের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছে।’

এক প্রশ্নের উত্তরে প্রফেসর বাসাম লাহুদ বলেন, ‘বাংলাদেশের নান্দনিক সৌন্দর্যে আমি মুগ্ধ। আমি সবাইকে বাংলাদেশ ভ্রমণ করার জন্য আহ্বান জানাব যাতে সবাই সেখানকার অপার সৌন্দর্য মনভরে উপভোগ করতে পারেন।’

আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে লেবাননের বিভিন্ন স্তরের গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরা উপস্থিত ছিলেন। আলোকচিত্র প্রদর্শনীটি তাৎক্ষণিকভাবে লেবানিজদের মধ্যে বাংলাদেশ সম্পর্কে ব্যাপক সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়। ২৯ মার্চ পর্যন্ত প্রদর্শনী চলবে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com