মঙ্গলবার, ১৬ Jul ২০১৯, ০৪:৪০ অপরাহ্ন

গাছে বেঁধে গৃহবধূ নির্যাতনের ঘটনায় নকলা থানার ওসি-এসআই প্রত্যাহার

গাছে বেঁধে গৃহবধূ নির্যাতনের ঘটনায় নকলা থানার ওসি-এসআই প্রত্যাহার

নকলা (শেরপুর) : শেরপুরের নকলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধে ডলি খানম নামে এক গৃহবধূকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় দায়িত্ব পালনে অবহেলার অভিযোগে নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহনেওয়াজ ও এসআই ওমর ফাুককে প্রত্যাহারের আদেশ দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে জেলা পুলিশের তিন সদস্যের তদন্ত কমিটির প্রধান সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আমিনুল ইসলাম শনিবার (১৫ জুন) দুপুরে প্রত্যাহারের আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
তবে তিনি বলেন, যেহেতু ১৮ জুন নকলা উপজেলা নির্বাচন সেহেতু নির্বাচন কমিশন থেকে নির্দেশনা পাওয়া মাত্রই তাকে নকলা থানা থেকে সরিয়ে নেয়া হবে। এর আগে গতকাল একই অভিযোগে ওই থানার এসআই মোঃ ওমর ফারুককে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।
উল্লেখ্য, নকলা পৌর শহরের কায়দা গ্রামের মৃত হাতেম আলীর ছেলে শফিউল্লাহর সাথে এক খন্ড জায়গা নিয়ে তার সহোদর বড়ভাই আবু সালেহ (৫২), নেছার উদ্দিন (৪৮) ও সলিম উল্লাহর (৪৪) বিরোধ ও দেওয়ানী মোকদ্দমা চলছিল। গত ১০ মে সকালে ওই এলাকার গোরস্থান সংলগ্ন শফিউল্লাহর স্বত্ত্বদখলীয় জমির ইরি-বোরো ধান আবু সালেহ ও তার লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে কাটতে গেলে শফিউল্লাহ বাঁধা দেয় বলে অভিযোগ নির্যাতিতার।
পরে প্রতিপক্ষের ধাওয়ার ওইখান থেকে চলে গেলে আবু সালেহ’র নেতৃত্বে একদল লোক ধান কাটতে শুরু করলে শফিউল্লাহর স্ত্রী ডলি খানম ডাক-চিৎকার দিয়ে বাঁধা দিতে গেলে আবু সালেহর হুকুমে তার ছোট ভাই সলিম উল্লাহ, ভাই বউ লাখী আক্তারসহ অন্যান্যরা তাকে ঘেরাও করে ফেলে। একপর্যায়ে তার চোখে মুখে মরিচের গুড়া ছিটিয়ে দিয়ে তাকে টানা-হেচড়া করে পাশের ক্ষেতের আইলের থাকা ইউক্যালিপটাস গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন করে। একমাস পর ১০জুন সোমবার নির্যাতনের খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে ওই নির্যাতনের ভিডিওচিত্রসহ খবর প্রকাশিত-প্রচারিত হলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com