রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন

বন্ধুর বাড়িতে এসে থাকা-খাওয়ার বিল

বন্ধুর বাড়িতে এসে থাকা-খাওয়ার বিল

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : বন্ধু নিমন্ত্রণ করেছে। পরিবার নিয়ে হইহই করে আপনিও উপস্থিত। দিন পাঁচেক বন্ধুর বাড়িতে ভোজন আর গল্প-গানে চমৎকার সময় কাটিয়ে আপনি যখন বাড়ির পথ ধরবেন বলে মনস্থির করেছেন তখন প্রিয় বন্ধুটি আপনার হাতে পাঁচ দিনের থাকা এবং খাওয়া খরচ বাবদ একটা বড়সড় বিলের কাগজ ধরিয়ে দিল। ভেবে দেখুন কেমন লাগবে তখন?

আপনি হয়তো ভাবতে পারছেন না। কারণ বন্ধু কখনো দাওয়াত দিয়ে থাকা-খাওয়ার জন্য টাকা চায় নাকি? যারা ভাবছেন এটা সম্ভব নয়, তাদের জন্য বিস্ময়ের শেষাংশ এখনো বাকি। কারণ এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে ইতালিতে। দক্ষিণ ইতালির এক নারী তার বন্ধুর কাছ থেকে তার বাড়িতে বেড়ানোর আমন্ত্রণ পান। এরপর সে তার স্বামী এবং দুই সন্তানকে নিয়ে ওই বন্ধুর বাড়ি হাজির হন।

তারা সেখানে পাঁচদিন অবস্থান করেছিলেন। পাঁচদিন পর যখন ওই নারী বন্ধুকে বিদায় জানানোর কথা বলেন তখন বন্ধু তাকে ৮৫ হাজার ৬০০ টাকার (৮০০ পাউন্ড) একটা বিল ধরিয়ে দেন। বিল দেখে ওই নারী অবাক! কারণ বন্ধুর বাড়িতে এসে থাকা-খাওয়ার বিলবাবদ টাকা দিতে হবে এমন আজব কথা তিনি এর আগে কখনো শোনেননি। যদিও তিনি বন্ধুর বাড়িতে থাকাকালীন বিভিন্ন খরচের টাকা দিতে রাজি ছিলেন। কিন্তু তার বন্ধুই তখন আপত্তি জানিয়েছিলেন। অথচ বিদায় নেয়ার সময় তার হাতে ধরিয়ে দেয়া হলো প্রায় লাখ টাকার বিল!

ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা হয়। সবাই বিভিন্ন রকম মন্তব্য করতে থাকে। কেউ কেউ এটাকে নির্লজ্জ ও গর্হিত কাজ বললেও অনেকে আবার এটাকে সমর্থন করেছেন। যারা সমর্থন করছেন তাদের যুক্তি— যেহেতু আমন্ত্রণ করে আমন্ত্রণকারী টাকা চেয়েছেন তার মানে ওই বন্ধুর ওপর তিনি নাখোশ ছিলেন।

এদিকে যার সঙ্গে এই ঘটনা ঘটেছে তিনি স্থানীয় একটি পত্রিকায় বলেন, ‘আমি কখনো ভাবতে পারি না কোনো বন্ধু তার বন্ধুর সাথে এমন করবে। আমার উচিত ছিল এই আমন্ত্রণ গ্রহণ না করা। আমার বাচ্চারা সেখানে যাওয়ার জন্য খুব আগ্রহী ছিল। তবে পাঁচ দিনের জন্য এত টাকা দেয়ার কোনো মানে হয় না। কারণ আমরা তাদের সাথে ছিলাম। তারা আমাদের জন্য আলাদা করে কোনো ব্যবস্থা করেনি। ফলে এটা সর্বোচ্চ ১০০ পাউন্ড হয়। কখনো ৮০০ পাউন্ড নয়।’

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!