সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৪:১৬ পূর্বাহ্ন

আর্চারে তছনছ অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং

আর্চারে তছনছ অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং

স্পোর্টস ডেস্ক : বৃষ্টিতে প্রথম সেশনে খেলা হলো মাত্র ৪ ওভার।  দ্বিতীয় ও তৃতীয় সেশনে যেটুকু সময় খেলা হলো তাতে লন্ডভন্ড অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং অর্ডার।

জোফরা আর্চারের গতির ঝড়ে তছনছ অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং।  হেডিংলিতে ৬ উইকেট নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস ১৭৯ রানে গুড়িয়ে দিয়েছেন নতুন পেস তারকা।

লর্ডসে নিজের অভিষেক টেস্টে দ্যুতি ছড়িয়েছেন আর্চার।  তার জন্য যে বড় কিছু অপেক্ষা করছিল তা বোঝা যাচ্ছিল বোলিং দেখেই।  দ্বিতীয় টেস্টেই আর্চার বাজিমাত করলেন।  সাদা পোশাকে প্রথম বারের মতো পাঁচ উইকেটের মাইলফলক ছুঁলেন।  তার খুনে বোলিংয়ে অসিদের আসা-যাওয়ার মিছিল লেগেছিল হের্ডিংলিতে।

প্রথম দুই টেস্টে নিষ্প্রভ হয়ে থাকা ডেভিড ওয়ার্নার বৃহস্পতিবার দলের হয়ে করেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬১ রান।  সর্বোচ্চ ৭৪ রান আসে লাবুশানের ব্যাট থেকে।  এছাড়া ১১ রান করেছেন টিম পেইন। বাকিরা সাজঘরে ফিরেছেন সিঙ্গেল ডিজিটে।  এক পর্যায়ে অস্ট্রেলিয়ার রান ছিল ২ উইকেটে ১৩৬।  আর্চারের তান্ডবে অসিরা শেষ ৮ উইকেট হারিয়েছে মাত্র ৪৩ রানে।

২৫ রানে ২ উইকেট হারানোর পর তৃতীয় উইকেটে ওয়ার্নার ও লাবুশানে ১১১ রানের জুটি গড়েন।  দুজনই তখন তুলে নিয়েছিলেন ফিফটি।  ক্রমেই বড় হতে থাকা এ জুটি ভাঙেন আর্চার।  ডেভিড ওয়ার্নার ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে।  এরপর একে একে নেন টিম পেইন, প্যাটিনসন ও কামিন্সের উইকেট।  শুরুতে তার শিকার ছিলেন হ্যারিস।  কামিন্সের উইকেট নিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম পাঁচ উইকেটের স্বাদ পান এ পেসার।  অসি কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন আর্চার।  নাথান লায়নকে আউট করে ষষ্ঠ উইকেট নেন আর্চার।

আর্চারের ৬ উইকেটের সঙ্গে সুইংয়ের জাদু দেখিয়ে ব্রড পেয়েছেন ২ উইকেট।  ১টি করে উইকেট পকেটে গেছে স্টোকস ও ওকসের।

অস্ট্রেলিয়া অলআউট হওয়ার পর ইংল্যান্ড প্রথম দিন আর ব্যাটিংয়ে নামেনি।  আলোর স্বল্পতায় দিনের খেলা শেষ করেন আম্পায়াররা।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com