সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:৩২ পূর্বাহ্ন

কুয়াকাটা সৈকত সুরক্ষা বাঁধে দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি

কুয়াকাটা সৈকত সুরক্ষা বাঁধে দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) : কুয়াকাটা সৈকত সুরক্ষা বাঁধের কাজে অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি।
গতকাল ৩ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সুরক্ষা বাঁধ সরেজমিনে পরিদর্শন শেষে এ কথা জানান তদন্ত কমিটির প্রধান পটুয়াখালী অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নুরুল হাফিজ।
কুয়াকাটায় সৈকতের ভাঙ্গনরোধে সুরক্ষা বাঁধের কাজে অনিয়ম ও দুর্নীতি নিয়ে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশের পর নড়ে চড়ে বসে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন। পটুয়াখালী অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নুরুল হাফিজকে আহ্বায়ক, পাউবো কলাপাড়া সার্কেলের নির্বাহী প্রকৌশলী খান মো. অলিউজ্জামানকে সদস্য সচিব ও কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনিবুর রহমানকে সদস্য করে সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে জেলা প্রশাসন। এ কমিটি মঙ্গলবার দুপুরে সুরক্ষা বাঁধ সরেজমিনে পরিদর্শন করে।
তবে সৈকত সুরক্ষা বাধেঁর কাজের দায়িত্বে থাকা পাউবো নির্বাহী প্রকৌশলীকে তদন্ত কমিটির সদস্য সচিব করায় তদন্তে প্রভাব পড়তে পারে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।
কুয়াকাটা পৌরসভার কাউন্সিলর শাহালম জানান, যে দুর্নীতি করেছে তাকেই আবার এ তদন্ত কমিটির সদস্য সচিব করা হয়েছে। তাতে কি সঠিক তদন্ত বের হবে?
কুয়াকাটা প্রেসক্লাব সভাপতি মিজানুর রহমান বুলেট জানান, পাউবোর দুর্নীতি শুধু কুয়াকাটা সুরক্ষা বাঁধেই নয়, তাদের মহিপুরস্থ জায়গা-জমি নিয়েও দুর্নীতি ও অনিয়ম চলছে। তবে পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীকে এ কমিটির সদস্য সচিব কি করে করা হলো সেটাই বোঝা যাচ্ছে না।
পটুয়াখালী অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নুরুল হাফিজ জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে দেখেছি কাজগুলো ভাল হয়নি। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া এ কাজে যদি কোন কর্মকর্তার গাফিলতি থেকে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
– রাসেল কবিব মুরাদ

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com