শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন

নীতি ও আদর্শকে ধারণ করেই নেতৃত্ব দিতে হবে : ঈসা

নীতি ও আদর্শকে ধারণ করেই নেতৃত্ব দিতে হবে : ঈসা

বাংলার কাগজ ডেস্ক : ছাত্র রাজনীতি আজ জনগনের শ্রদ্ধা হারিয়েছে বলে মন্তব্য করে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এনডিপি মহাসচিব ও জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন, নীতি ও আদর্শকে ধারণ করেই নেতৃত্ব দিতে হবে। তাহলেই সম্ভব ছাত্র রাজনীতির গৌরব ফিরিয়ে আনা।

তিনি ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি বরিশালের যে স্কুলে শিক্ষা নিয়েছেন মনে রাখতে হবে সেখানেই শিক্ষাগ্রহন করেছেন উপমহাদেশের আজাদী আন্দোলনের নেতা, নেতাদের নেতা শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক। তার চরিত্র ধারন করতে হবে। তার জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে ছাত্র রাজনীতির ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে হবে।

রবিবার বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় আল নাহিয়ান খান জয়কে বরিশাল বিভাগ সমিতির উদ্যোগে আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বরিশাল বিভাগ সমিতির সভাপতি ও সাবেক সচিব ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শাহে আলম, বরিশাল বিভাগ সমিতির সাধারণ সম্পাদক এম.এ জলিল, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিখা চক্রবর্তী, বরিশাল বিভাগ সমিতির সহ সভাপতি ও জয়ের পিতা আব্দুল আলিম খান, মিরপুর থানা আওয়ামী লীগ নেতা কাজী লিয়াকত হোসেন, বরিশাল বিভাগ সমিতির আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. মাহাবুব আলম দুলাল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ.স.ম মোস্তফা কামাল ও নুরে আলম সিদ্দিক, বরিশাল বিভাগ সমিতির কোষাধ্যক্ষ ও রূপালী ব্যাংকের সাবেক জিএম শামসুদ্দিন খাজা, আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য লায়ন কাজী হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ ন্যাপ ঢাকা মহানগর সভাপতি মো. শহীদুন্নবী ডাবলু, কবি এস.আই জনি, ছাত্রলীগ নেতা শরিফা আক্তার. মারুফা ইসলাম প্রমুখ।

সভাপতির ভাষণে সিরাজ উদ্দীন আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৪৮ সনের ৪ঠা জানুয়ারি ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন দেশ ও জাতির কল্যাণে ছাত্র নেতৃত্বের মাধ্যমে জাতীয় নেতৃত্ব সৃষ্টি করার লক্ষ্যে। সেই ছাত্রলীগই ৫২ সনের ভাষা আন্দোলন, ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন ও ৭০’র গণঅভ্যুত্থান, ৭০’র নির্বাচন এবং ৭১’র মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনা করেছেন বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ৯ মাসের যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছে।

তিনি বলেন, আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের যেসব নেতারা উজ্জল ভূমিকা রেখেছিল আল নাহিয়ান জয় তাদের উত্তরসূরী হবে এই আশা ব্যক্ত করি। সাথে সাথে আমি বলতে চাই যে প্রতিকুল অবস্থায় আল নাহিয়ান জয়কে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নির্বাচন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি সফল নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য। আশা করি আল নাহিয়ান জয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মুখকে উজ্জল করবে এবং আগামীদিনে সঠিক নেতৃত্ব দিবে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!