মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

‘বুয়েট মনে করলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে’

‘বুয়েট মনে করলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে’

ঢাকা : বুয়েট যদি মনে করে, তবে তারা ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে, এটা তাদের ব্যাপার বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই রাজনীতি নেই।

বুধবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে তার যোগদান ও ভারত সফর নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বুয়েটের কমিটি আছে, তারা যদি মনে করে বন্ধ (ছাত্র রাজনীতি) করে দিতে পারে। এখানে আমরা কোনো হস্তক্ষেপ করব না। এই যে ছেলেটাকে (বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ) হত্যা করল, এটা তো কোনো রাজনীতি না। বসুনিয়াকে (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র রাউফুন বসুনিয়া) যে হত্যা করেছিল সেটা রাজনৈতিকভাবে।

ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করা হবে কি না- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘যেকোনও আন্দোলন-সংগ্রামে ছাত্ররাই মুখ্য ভূমিকা নিয়েছে। তবে বুয়েট যদি মনে করে, ছাত্ররাজনীতি ব্যান করে দিতে পারে। এটা তাদের ব্যাপার।

তিনি বলেন, ‘ছাত্ররাজনীতি ব্যান্ড করে দিতে হবে- এটা তো মিলিটারি ডিক্টেটরদের কথা। এখানে রাজনীতিটা কোথায়? এর কারণ কোথায়? এটা খুঁজে খুঁজে বের করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী এসময় ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরে বলেন, ছাত্রলীগ সবসময় একটি স্বাধীন স্বতন্ত্র সংগঠন ছিল। তবে নীতি-আদর্শের প্রশ্নে মূল দল তো কিছু দিকনির্দেশনা দেবেই। জিয়াউর রহমান আসার পর নষ্ট রাজনীতি শুরু হয়েছে, যেটা করছিলেন আইয়ুব খান। ছাত্র সংগঠনগুলোকে মূল দলের অঙ্গসংগঠন করা হয়।

তিনি বলেন, নেতৃত্ব উঠে এসেছে ছাত্র নেতৃত্ব থেকে। রাজনীতি শিক্ষার ব্যাপার, ট্রেনিংয়ের ব্যাপার। আমি নিজেই ছাত্ররাজনীতি করে এসেছি। দেশের ভালো-মন্দের চিন্তা তখন থেকেই আমার তৈরি হয়েছে।’

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 BanglarKagoj.Net
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!