1. nirjoncomputer@gmail.com : Alamgir Jony : Alamgir Jony
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন

নালিতাবাড়ীতে ইউপি ভবনে নিয়ে জিম্মি করে কিশোরী ধর্ষণ: যুবক গ্রেফতার

  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ২ জুন, ২০২০
  • ১৮৯ বার পড়া হয়েছে

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) : শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে তের বছর বয়সী এক কিশোরীকে জিম্মি করে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগে হারেজ আলী (২৮) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।
জানা গেছে, উপজেলার সন্যাসীভিটা গ্রামের মৃত আব্দুল ওয়াহাব আলীর পুত্র হারেছ আলী গত শুক্রবার সকালে বৃষ্টির সময় তারই সন্তানের দেখাশোনার কাজে নিয়োজিত তের বছর বয়সী কিশোরীকে নিজ বাড়ি সংলগ্ন বাঘবেড় ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে মোবাইল ফোনে ডেকে আনে। পরে কিশোরীকে কৌশলে প্রাণীসম্পদ চিকিৎসকের কক্ষে নিয়ে জিম্মি করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনাক্রমে ধর্ষণের এ ঘটনা কিশোরীর মা-বাবা জানার পর সোমবার নালিতাবাড়ী থানায় অবহিত করেন। পরে পুলিশ অভিযুক্ত হারেজ আলীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে এবং কিশোরীর পিতার অভিযোগ মামলা হিসেবে গ্রহণ করে।
অভিযুক্ত হারেজ আলী নিজের দোষ স্বীকার করে জানায়, ওই কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক সে জেনে ফেলায় তা প্রকাশের ভয় দেখিয়ে সুযোগ হিসেবে কাজে লাগিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে।
উল্লেখ্য, অভিযুক্ত হারেজ আলী শহরের ছিটপাড়া মহল্লায় প্রেম করে বিয়ের করে ও এক কন্যা সন্তান জন্ম নেওয়ার কিছুদিন পর ওই স্ত্রীকে তালাক দেয়। এরপর সে মোটা অংকের অর্থের লোভে পড়ে বিপতিœক এক তরুণীকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে বিয়ে করে।
অভিযুক্ত হারেজ আলী পুলিশের কাছে তার দোষ স্বীকার করেছে জানিয়ে নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বছির আহমেদ বাদল বলেন, ধর্ষণের ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার অভিযুক্তকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Customized By BreakingNews