1. nirjoncomputer@gmail.com : Alamgir Jony : Alamgir Jony
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০, ০৭:৪১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা গ্রেপ্তার করোনায় আরও ৪৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৬৬ নালিতাবাড়ীতে পাহাড়ি ঢলে ভোগাই বাঁধ ভেঙ্গে প্লাবিত, জনদূর্ভোগ ইতালিতে ফের ছড়াচ্ছে করোনা, নতুন রোগীদের সিংহভাগ বাংলাদেশি চট্টগ্রাম মহানগরীর করোনায় বিপাকে বাড়িওয়ালারা, মিলছে না ভাড়াটিয়া ঝিনাইগাতীতে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ১০ ইউপি সদস্যের অনাস্থা শ্রীবরদীতে ঈদ-উল-আযহায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মতবিনিময় সভা কলাপাড়ায় জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পেতে খাল রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন শ্রীবরদীতে করোনায় কর্মহীন কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের মানববন্ধন ঝিনাইগাতীতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

পরিসংখ্যানে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট

  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৮৮ বার পড়া হয়েছে

স্পোর্টস ডেস্ক : কাল ২১ ফেব্রুয়ারি ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’। এরপরের দিন মিরপুরে জিম্বাবুয়েকে একমাত্র টেস্টে আতিথ্য দিবে স্বাগতিক বাংলাদেশ। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের টেস্ট পারফরম্যান্স একেবারে বিবর্ণ। তবুও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন টেস্টে ফেভারিটের তকমা নিয়ে নামছে বাংলাদেশ।

২০০১ সালে প্রথমবারের মতো দুদল মুখোমুখি হয়। তখনকার শক্তিশালী জিম্বাবুয়ের সঙ্গে পেরে উঠতো না বাংলাদেশ। তবে কালের খেয়ায় বদলেছে দৃশ্যপট। শক্তির বিচারে জিম্বাবুয়ের চেয়ে ঢের এগিয়েছে টাইগাররা। মিরপুর টেস্টের আগে চোখ বুলিয়ে নেয়া যাক দুদলের পরিসংখ্যানে।

মোট সিরিজ

মোট ৮টি সিরিজে মুখোমুখি হয় দুই দল। মিরপুরে ১ ম্যাচের টেস্ট সিরিজটি হতে যাচ্ছে ৯ নম্বর। এরমধ্যে ২টি সিরিজে বাংলাদেশ ও ৪টি জিতেছে জিম্বাবুয়ে। বাকি ২টি সিরিজ ড্র হয়েছে।

মোট ম্যাচ

৮ সিরিজে মোট ১৬টি ম্যাচে মুখোমুখি হয় দল। এর মধ্যে জিম্বাবুয়ের জয় ৭টি। আর বাংলাদেশের ৬টি। বাকি ৩ টেস্ট ড্র। তবে বাংলাদেশের জন্য বড় অনুপ্রেরণা শেষ ৬টি ম্যাচের ৫টিতে জয় পেয়েছে টাইগার বাহিনী।

সর্বোচ্চ স্কোর

দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে দলীয় সর্বোচ্চ স্কোর জিম্বাবুয়ের। তবে তাও ১৯ বছর আগে গড়া। ২০০১ সালে চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়ে সংগ্রহ করে ৫৪২/৭ (ডিক্লে.)। আর বাংলাদেশের দলীয় সর্বোচ্চ স্কোর ৫২২/৭ (ডিক্লে.)। ২০১৮ সালে মিরপুরে মুশফিকের ক্যারিয়ার সেরা (২১৯*) ইনিংসে ভর করে ওই স্কোর গড়ে বাংলাদেশ।

সর্বনিম্ন স্কোর

দলীয় সর্বনিম্ন স্কোরে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০৭ রান। ২০০১ সালে ঢাকায় এত কম রানে গুটিয়ে যায় টাইগাররা। ২০১৪ সালে তাইজুলের ঘূর্ণিতে ১১৪ রানে অল আউট হয়ে মিরপুরে ম্যাচ হারে জিম্বাবুয়ে। এটি আফ্রিকার দেশটির সর্বনিম্ন।

সর্বোচ্চ রান

বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রান মুশফিকুর রহিমের। ৮ ম্যাচের ১৬ ইনিংসে ব্যাট করে ৬৪৩ রান করেছেন মুশফিক। আর জিম্বাবুয়ের পক্ষে ব্রেন্ডন টেলর ১০ ম্যাচের ২০ ইনিংসে ব্যাট করে ১০৩৯ রান সংগ্রহ করেন।

ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোর

বাংলাদেশের পক্ষে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোর মুশফিকের, অপরাজিত ২১৯ রান। যা তার ক্যারিয়ার সেরা। বাংলাদেশের পক্ষেও টেস্টে সর্বোচ্চ। দুদলের মুখোমুখিতেও সর্বাধিক। জিম্বাবুয়ের পক্ষে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত স্কোর টেলরের ১৭১ রান।

সর্বোচ্চ উইকেট

দুদলের মুখোমুখিতে সর্বোচ্চ উইকেট নিয়েছেন বাংলাদেশের তাইজুল। ৫ ম্যাচে তার শিকার ৩৫ উইকেট। দ্বিতীয় সেরা সাকিব আল হাসান। ৬ ম্যাচে দেশসেরা অল রাউন্ডার নিয়েছেন ২৬ উইকেট। আর জিম্বাবুয়ের পক্ষে সর্বোচ্চ উইকেট কাইল জার্ভিসের, ২৬টি।

ইনিংস সেরা বোলিং

এখানেও সেরা তাইজুল। ইনিংসে ৮ উইকেট নেয়া একমাত্র বাংলাদেশি বোলার তাইজুল। এ কীর্তি গড়েন ২০১৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩৯ রান খরচায়। আর জিম্বাবুয়ের পক্ষে ডগলাস হোন্ডো ইনিংসে ৫৯ রানে ৬ উইকেট শিকার করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Customized By BreakingNews