1. admin@banglarkagoj.net : admin :
রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০, ০৮:৪১ পূর্বাহ্ন

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর বরাবার চিঠি দিলেন এনডিপি

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে

ঢাকা: দুই বছর আগে একটি দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাভোগ করছেন তিনবারের প্রধানমন্ত্রী এবং দুইবারের বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। আমি সংবাদপত্র ও অন্যান্য মাধ্যমে জানতে পেরেছি বেগম খালেদা জিয়া ভীষণ অসুস্থ এবং তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে নেয়া প্রয়োজন।

আমি খুব কাছ থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে দেখেছি। বঙ্গবন্ধুর হৃদয় ছিল সাগরের মতো বিশাল। অত্যন্ত মানবদরদি মহান একজন নেতা ছিলেন তিনি। সেই মানবদরদি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা হচ্ছেন আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। বাবার বৈশিষ্ট্যই সন্তানের মধ্যে বিদ্যমান থাকবে এটাই স্বাভাবিক এবং এই সাহসে বলিয়ান হয়েই আপনাকে বলতে চাই- মুজিব বর্ষে আমরা সবাই সামনের দিকে অগ্রসর হচ্ছি, উন্নতি করছি, আপনার সুযোগ্য নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। অর্থনৈতিকভাবে আমরা অনেক উন্নতি করছি, কোন বাধাই আমাদেরকে দমাতে পারছে না। ক্রিকেটেও আপনার সুদৃষ্টি ছিল বলে দিন দিন ক্রিকেটারদেরও অনেক উন্নতি ঘটছে। যুবকদের বিশ^কাপ জয় সম্পর্কে আপনি বলেছেন, বাংলাদেশের যুবকরা বিশ^কাপ জিতেছে, এটা মুজিব বর্ষ উদযাপনের মূহূর্তে একটি শুভ দিক এবং বড় অর্জন।

মানবদরদি অনেক কাজ আপনি করেছেন, তার নজির আছে। মুজিব বর্ষে আরও একটি মানবদরদি পদক্ষেপ আপনি নেবেন বলে আশা রাখছি। এরশাদবিরোধী আন্দোলনে আপনারা একসাথে আন্দোলন করেছিলেন এবং এরশাদের পতন ঘটিয়েছিলেন। তখন আপনাদের মধ্যে যে হৃদ্যতাপূর্ণ সম্পর্ক ছিল বর্তমানে খালেদা জিয়ার মুক্তির মাধ্যমে সেই মধুর সম্পর্ক আবারও সৃষ্টি হতে পারে। আপনি জানেন, বেগম খালেদা জিয়া একজন বয়স্কা মহিলা। তার বয়সের কথা চিন্তা করে আপনি তাঁর মুক্তির ব্যবস্থা করুন এবং মহানুভবতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করুন। আমি নিশ্চিত আপনার এই সিদ্ধান্ত সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধাবোধ অর্জন করবে এবং এটি একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত হিসেবে ইতিহাসের পাতায় স্থান করে নেবে।

আজ আমার মনে পড়ে বঙ্গবন্ধুর বিশাল হৃদয়ের কথা। ঐ সময় যুদ্ধাপরাধির মামলায় মরহুম খান-এ-সবুরের একটি চিরকুট পেয়ে স্পেশাল অর্ডার দিয়ে অভিযুক্তকে বের করে এনেছিলেন বঙ্গবন্ধু।

বঙ্গবন্ধুর মতো মানবদরদি এমন মহানুভব নেতা আমার রাজনৈতিক জীবনে আর দেখি নি। ১৯৭৩ সাল থেকে বঙ্গবন্ধুর শাসনামলে বঙ্গবন্ধুবিরোধীরা আন্দোলন করে তাঁকে অতিষ্ঠ করে তুলেছিলো। এভাবে সময় অতিবাহিত হয়েছে এবং এরই মধ্যে একদল বিপথগামী সেনাসদস্যের হাতে বঙ্গবন্ধু স্বপরিবারে নিহত হন আর এই হত্যাকান্ডের মধ্য দিয়ে তারা আপনাকে এবং রেহানা আপাকে এতিম করেছে। তারা শুধু বঙ্গবন্ধুকেই হত্যা করেনি, তারা বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকেই চরমভাবে বাধাগ্রস্থ করেছে, গোটা জাতিকেই এতিম করেছে। আপনি বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের বিচার করেছেন আর এতে জাতিও কলঙ্কমুক্ত হয়েছে। ধন্যবাদ আপনাকে।

আমি আমার বক্তব্য আর দীর্ঘায়িত করবো না। আপনি বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা এবং বাংলাদেশের চারবারের প্রধানমন্ত্রী। আমি বাংলাদেশের একজন নগন্য রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে আপনার কাছে আবেদন করছি- খালেদা জিয়া একজন বয়স্ক রাজনীতিক। তিনি কয়েকটি জটিল রোগে আক্রান্ত। বর্তমানে তিনি জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আছেন। তার জীবন রক্ষার্থে তার অপরাধ রাজনৈতিক বিবেচনায় না এনে বঙ্গবন্ধুর মতো মানবিক দিক দিয়ে দেখে তার সুচিকিৎসার জন্য মুক্তিদানের সবরকম ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আমি আশা রাখি। আপনি বাংলাদেশের নির্বাহী ক্ষমতার একমাত্র অধিকারী। আপনি চাইলে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি অবশ্যই সম্ভব। তার

মুক্তি আপনার একটু সদিচ্ছাই যথেষ্ট বলে আমি মনেপ্রাণে বিশ^াস করি।

আমি আপনার সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

আল্লাহ হাফেজ। বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।

(খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা)
চেয়ারম্যান
ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি- এনডিপি।
১১৬/২, নয়া পল্টন, বক্স কালভার্ট রোড, ঢাকা-১০০০।

(হুবুহু চিঠিটি তুলে ধরা হলো)

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 BanglarKagoj.Net
Theme Customized By BreakingNews