1. nirjoncomputer@gmail.com : Alamgir Jony : Alamgir Jony
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন

শেরপুর ও শ্রীবরদীতে দুই নারীর করোনা সণাক্ত : সংশ্লিস্ট সব লকডাউনে

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ৫ এপ্রিল, ২০২০
  • ৫০৫ বার পড়া হয়েছে

শেরপুর : শেরপুর সদর উপজেলার মধ্যবয়রা গ্রামে শাহীনা আক্তার ও শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আয়া ও শহরের সাতানিপাড়া মহল্লার বাসিন্দা খোদেজা বেগমের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। রবিবার (৫ এপ্রিল) রাতে তাদের দেহে করোনা সণাক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে শ্রীবরদী হাসপাতাল, একটি ডায়াগনোস্টিক সেন্টার, একটি স্টুডিও ও আক্রান্তদের বাড়িসহ আশপাশ এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।
জানা গেছে, শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আয়া খোদেজা বেগম গত কয়েকদিন যাবত সর্দি, কাশি ও জ্বরে ভোগছিলেন। রবিবার সকালে তার নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে রাত আটটার দিকে প্রাপ্ত রিপোর্টে তার নমুনায় করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়।
খোদেজা শনিবার পর্যন্ত হাসপাতালে দায়িত্ব পালন করেছেন। ফলে শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, রোগী ও হাসপাতালের আবাসিক এলাকায় অবস্থান করা ডাক্তার, নার্স ও অন্যান্য কর্মচারীকে লকডাউন করা হয়েছে। এছাড়া খোদেজার ছেলে খোরশেদ আলম শহরের বর্ষা ডিজিটালে কাজ করে এবং খোদেজা নিবির ডায়াগনোস্টিক সেন্টারে অতিরিক্ত সময়ে কাজ করে। ফলে ওই দুটি প্রতিষ্ঠানকেও লকডাউনের আওতায় আনা হয়েছে। ফলে ওই দুটি প্রতিষ্ঠানকেও লকডাউনের আওতায় আনা হয়েছে। লকডাউনে রাখা হয়েছে সাতানিপাড়ায় খোদেজার পরিবার ও নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন তার মেয়ের জামাতা হাফিজুরের বাড়ি।
এদিকে শেরপুর সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের মধ্যবয়রা গ্রামে শাহীনা আক্তার নামে এক গৃহবধূর শরীরের নমুনা থেকে করোনাভাইরাস সণাক্ত হয়েছে। রাত সাড়ে আটটার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে তার রিপোর্ট এলে তাতে করোনাভাইরাস পজেটিভ পাওয়া যায়। ফলে শাহীনার স্বামীর বাড়ি ও পিতার বাড়ি দুটোই লকডাউন করা হয়েছে। রবিবার রাতে সিভিল সার্জন একেএম আনওয়ারুর রউফ এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Customized By BreakingNews