1. nirjoncomputer@gmail.com : Alamgir Jony : Alamgir Jony
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
রবিবার, ০৫ জুলাই ২০২০, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

অবশেষে শিকারীদের হাতে ধরা পড়ল মানুষ হন্তারক বন্যশূকরটি

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ৩ মে, ২০২০
  • ৩৩৩ বার পড়া হয়েছে

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) : অবশেষে বহু মানুষকে আহতকারী ও একজন নারী হন্তারক বন্যশূকরটি শিকারীদের হাতে ধরা পড়েছে। ফাঁদে ফেলে আটকের পড় শূকরটিকে হত্যা করে নিজেদের মাঝে বণ্টন করে নিয়েছে উপজাতি সম্পদায়ের মানুষেরা।
রোববার (৩ মে) সকাল সাড়ে নয়টার দিকে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার ভারত সীমান্তঘেঁষা পাহাড়ি পল্লী পশ্চিম সমেশ্চুড়া গ্রামের বড়খোল নামক স্থান থেকে শূকরটি শিকার করা হয়। তবে এসময় শূকড়ের আক্রমণে বিজয় মারাক (৪৫) নামে একজন আহত হয়েছে।
বাংলার কাগজ এর স্থানীয় নিজস্ব সোর্স জানায়, প্রায় একমাস যাবত একটি বড় আকাড়ের বন্যশূকর পাহাড়ের সীমান্তবর্তী কয়েকটি গ্রামে ঢুকে তান্ডব চালিয়ে আসছিল। ফলে উপজাতি শিকারীরা শূকরটিকে ধরতে মাসখানেক সময় ধরেই চেষ্টা করে আসছিল। কিন্তু বারবারই ব্যর্থ হচ্ছিল শিকারের চেষ্টা। ইতিমধ্যেই পাহাড়ে লাকড়ি কাটতে যাওয়া ৭ জনকে আহত করে শূকরটি। শূকরের আক্রমণে নিহত হয় মোমেনা বেগম নামে এক নারী। ফলে পাহাড়জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছিল। এমতাবস্থায় প্রতিদিনের শিকারের চেষ্টার অংশ হিসেবে রোববার সকালে পশ্চিম সমেশ্চুড়া রঞ্জনা ঝরণার উত্তরে বড়খোল এলাকায় পাহাড়ি জঙ্গলে শূকরটির অবস্থান নিশ্চিত হয় এ শূকরটি শিকারে অভিযান চালায় স্থানীয় উপজাতি সম্প্রদায়ের শিকারীরা। একপর্যায়ে শিকারীরে জালে আটকা পড়ে শূকরটি। পরে বল্লম দিয়ে হত্যা করে লোকালয়ে এনে জবাই শেষে নিজেদের মধ্যে মাংস বণ্টন করে তারা।
এদিকে বন্যপ্রাণী হত্যা আইনত দণ্ডণীয় অপরাধ হলেও জানমালের ক্ষতি করায় শূকরটি হত্যার পর স্থানীয় বাসিন্দাদের মনে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Customized By BreakingNews