1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন

নগদ আর্থিক সহায়তা: তালিকা থেকে বাদ ৬ লাখ ব্যক্তি

  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ৪ মে, ২০২১

বাংলার কাগজ ডেস্ক : বহুমুখী যাচাইয়ের পর নগদ আর্থিক সহায়তার তালিকা থেকে ৬ লাখ ৫৮ হাজার ৯২২ জন বাদ পড়েছেন। সরকার ঘোষিত আগের উপকারভোগী ৩৪ লাখ ৯৭ হাজার ৩৫৩ জনের মধ্যে ২৮ লাখ ৩৮ হাজার ৪৩১ জনের তথ্য সঠিক পাওয়া যায়।  তাদের ২০২১ সালে নগদ আর্থিক অনুদান দেওয়ার জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

২৫০০ টাকা আগামী তিন দিনের মধ্যে উপকারভোগীদের কাছে পৌঁছে যাবে। এই কর্মসূচিতে সরকারের ব্যয় হবে ৭১৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকার বেশি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোববার এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। উপকারভোগীদের মধ্যে এ বছর ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া রয়েছে কৃষক, দিনমজুর, শ্রমিক, গৃহকর্মী, রিকশা ও ভ্যানচালক, মোটরশ্রমিকসহ কর্মহীন বিভিন্ন পেশার মানুষ।

মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে নগদ সহায়তার টাকা দেওয়া হবে। এর মধ্যে ডাক বিভাগের ‘নগদ’ এর মাধ্যমে দেওয়া মোট টাকার ৪৭ শতাংশ বা ৩৩৪ কোটি ৯১ লাখ ৮০ হাজার ২৩০ টাকা, বিকাশের মাধ্যমে ২৯ শতাংশ বা ২০৪ কোটি ৮৫ লাখ ৩২ হাজার ৮৯০ টাকা, রকেটের মাধ্যমে ২১ শতাংশ বা ১৫১ কোটি ২৩ লাখ ৬২ হাজার ৫৫৫ টাকা এবং ব্যাংক পেমেন্ট করা হবে তিন শতাংশ বা ২২ কোটি ৮৫ লাখ ৭৮ হাজার ২৯০ টাকা। শিওর ক্যাশ এ সংক্রান্ত সেবা প্রদান না করায় প্রতিষ্ঠানটিকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

২০২০ সালের চেয়ে এ বছর উপকারভোগীর সংখ্যা কমেছে ৬ লাখের বেশি।  তালিকা থেকে বাদ পড়াদের জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে মোবাইল সিম নিবন্ধনের তথ্য ও মোবাইল অপারেটরদের কাছে থাকা সংরক্ষিত তথ্যে মিল পাওয়া যায়নি।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান কর্মসূচি বাস্তবায়ন প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, গত বছরের ১২ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫০ লাখ পরিবারের মধ্যে সরকার থেকে ব্যক্তি (জি টু পি) পদ্ধতিতে ‘নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান কর্মসূচি’ উদ্বোধন করেন। এজন্য মাঠ পর্যায়ে স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে তথ্য ও প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের আওতায় সরকারের সেন্ট্রাল এইড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (সিএএমএস) সফটওয়্যারের মাধ্যমে মোট ৪৯ লাখ ৩০ হাজার ১৫৪ জনের নাম তালিকাভুক্ত করা হয়।

পরে এই তালিকা অর্থ বিভাগে পাঠানো হয়। অর্থ বিভাগ তা বিভিন্নভাবে যাচাই-বাছাই শেষে আর্থিক সহায়তার জন্য ৩৪ লাখ ৯৭ হাজার ৩৫৩ জনের নাম তালিকাভুক্ত করে। তালিকাভুক্তদের জনপ্রতি ২৫০০ টাকা করে দেওয়া হয়।  এতে সরকারের ব্যয় হয়েছিল মোট ৮৭৯ কোটি ৫৮ লাখ ৪২ হাজার ৭৯৫ টাকা।  সে সময় তথ্যে গড়মিল থাকায় বাদ যাওয়া ১৪ লাখ ৩২ হাজার ৮০১ জনকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়নি।

অর্থ বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেন, চলতি বছর একই কর্মসূচির আওতায় দ্বিতীয়বারের মতো নগদ সহায়তা দিতে গত বছরের তালিকাকে ভিত্তি ধরে তালিকা করা হয়। পরে ওই তালিকা অনুযায়ী সব তথ্য আবার যাচাই-বাছাই করা হয়। এতে উপকারভোগীদের এনআইডির তথ্যের সঙ্গে মোবাইল সিম নিবন্ধনের তথ্য ও মোবাইল অপারেটরদের কাছে সংরক্ষিত তথ্য যাচাই করা হয়।  পরে আগের উপকারভোগী ৩৪ লাখ ৯৭ হাজার ৩৫৩ জনের মধ্যে ২৮ লাখ ৩৮ হাজার ৪৩১ জনের তথ্য সঠিক পাওয়া যায়।  এরাই ২০২১ সালে নগদ আর্থিক অনুদান পাওয়ার যোগ্য বিবেচিত হয়।

এ বছর নগদ সহায়তা পাওয়ার তালিকায় অন্যান্য পেশার সঙ্গে নতুন করে যোগ হয়েছে ‘ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী’।  এই পেশার ৯৮ হাজার ৯১৬ জন নগদ সহায়তার টাকা পাবে। এছাড়া ১৪ লাখ ৫১ হাজার ৫৬২ জন দিনমজুর, তিন লাখ ৬৬ হাজার ২৩৫ জন কৃষক, দুই লাখ ৩৪ হাজার ২১২ জন শ্রমিক, এক লাখ ৮৪ হাজার ৭২ জন গৃহকর্মী, এক লাখ ৭০ হাজার ৮৩৮ জন পরিবহন শ্রমিক এবং অন্যান্য পেশার তিন লাখ ৩২ হাজার ৫৯৬ জন নগদ সহায়তার টাকা পাবে। এই হিসেবে ৬টি পেশার লোক মোট বরাদ্দের ৮৮ শতাংশ টাকা পাচ্ছেন।

নগদ সহায়তা প্রাপ্তদের মধ্যে ঢাকার ৫ লাখ ৯০ হাজার ৪৫০ জন, ময়মনসিংহের এক লাখ ৯৩ হাজার ৫৫৮ জন, চট্টগ্রামের পাঁচ লাখ ৩৪ হাজার ৫৭৬ জন, রাজশাহীর তিন লাখ ৫০ হাজার ৬৫১ জন, রংপুরের তিন লাখ ৬৯ হাজার ২৪৭ জন, খুলনার তিন লাখ ৮৩ হাজার ২৮১ জন, বরিশালের দুই লাখ ৮ হাজার ৪২৬ জন এবং সিলেটের দুই লাখ ৪ হাজার ৭৬৭জন এই টাকা পাবেন।

নগদ সহায়তা প্রাপ্ত মোট উপকারভোগীর মধ্যে পুরুষের সংখ্যা ২১ লাখ ৫৮ হাজার ৫৯৭ জন, যা মোট উপকারভোগীর ৭৬ শতাংশ। আর নারীর সংখ্যা ছয় লাখ ৭৯ হাজার ৮৩৪ জন, মোট উপকাভোগীর ২৪ শতাংশ।  আর বয়স হিসেবে ৩১-৪০ বছর বয়সী জনগোষ্ঠী নগদ সহায়তার সর্বোচ্চ বরাদ্দ পেয়েছেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!