1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:২৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
নালিতাবাড়ীতে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করায় যুবক গ্রেফতার নীলফামারীতে বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ ডোমারে ৭০ পিচ টাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ ২ যুবক গ্রেফতার নীলফামারীতে “এক্সেল রোড কন্ট্রোল স্টেশন” স্থাপনের প্রতিবাদে মানববন্ধন  বান্দরবানে সেনাবাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে কেএনএফ সন্ত্রাসী নিহত রুমায় কেএনএফ আতঙ্কে বাড়ি ছাড়ছেন গ্রামবাসী বান্দরবানে বিস্তীর্ণ মাঠ জুড়ে সরিষার আবাদ নিপাহ ভাইরাসে মারা গেছেন ৫ জন, আক্রান্ত ৮: স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকারকে বিদ্যুৎ, গ্যাস ও তেলের দাম বাড়ানোর ক্ষমতা দিয়ে বিল পাস শর্ত সাপেক্ষে হিন্দি সিনেমা আমদানির পক্ষে: নিপুণ

শীতকালে জীবনযাপনে যেসব পরিবর্তন আনবেন না

  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২২

লাইফস্টাইল ডেস্ক : শীত হলো এমন একটা মৌসুম যা আমাদের জীবনযাপনে কিছু না কিছু পরিবর্তন নিয়ে আসে। এর মধ্যে ইতিবাচক পরিবর্তন যেমন রয়েছে, তেমনি আবার নেতিবাচক পরিবর্তনও রয়েছে। জীবনযাপনে কিছু নেতিবাচক পরিবর্তনের কুফল তুলে ধরা হলো।

* শরীরচর্চা না করা: ব্যায়ামের ফলে মানসিক চাপ, বিষণ্নতা ও উদ্বেগের মতো সমস্যা কমে যায়। শীতকালে মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি হয় বলে এসময় ব্যায়ামের গুরুত্ব রয়েছে। কেবল মানসিক স্বাস্থ্য নয়, ব্যায়ামে শারীরিক স্বাস্থ্যেরও উন্নতি হয়। নিয়মিত ব্যায়াম করলে শরীর ফিট থাকে ও নানারকম রোগের ঝুঁকি কমে। কিন্তু শীতকাল যে কাউকে ব্যায়ামের প্রতি বিমুখ করতে পারে। এ কারণে শীতকালে মানসিক ও শারীরিক সমস্যার প্রবণতা বেড়ে যায়। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা সপ্তাহে পাঁচ দিন ৩০ মিনিট করে ব্যায়ামের করার পরামর্শ দিয়েছেন। ব্যায়ামের পাশাপাশি ইয়োগাও করতে পারেন।

* ঘরে আটকে থাকা: শীতকালের ঠান্ডা আবহাওয়া মানুষকে ঘরে থাকতে প্ররোচিত করে। এসময় কম্বলের নিচে শুয়ে ইন্টারনেট ব্রাউজিং ও ভিডিও দেখার প্রবণতা বেড়ে যায়। শীতকালে বিষণ্নতার মতো মানসিক সমস্যা বেড়ে যায়। গবেষণায় দেখা গেছে, বিষণ্নতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে ঘরে অবস্থানের সময়সীমা বেড়েছে। কিন্তু ঠান্ডা আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে বাইরে বের হলে ভালো অনুভূতি পাওয়া যায়। শীতেও একটা নির্দিষ্ট সময় গায়ে রোদ লাগানো উচিত। রোদ পোহালে মেজাজ ভালো হয় ও বিষণ্নতা হ্রাসকারী ভিটামিন ডি উৎপন্ন হয়। কেবল রোদ পোহানো নয়, কুয়াশাচ্ছন্ন সময়েও বাইরে বের হলে মনে ইতিবাচক প্রভাব পড়ে। শীতের শুরু থেকেই নিয়মিত বাইরে বের হলে শরীর ধীরে ধীরে ঠান্ডা আবহাওয়ায় খাপ খেতে পারবে ও মানসিক সমস্যা নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

* সানস্ক্রিন ব্যবহার না করা: গরমকালে অনেকেই সানস্ক্রিন ব্যবহারে যতটা মনোযোগী হোন, শীতকালে ততটা উদাসীন হয়ে পড়েন। মনে করেন যে, শীতকালে ত্বকের তেমন ক্ষতি হবে না। কিন্তু শীতকালের সূর্যও ত্বকে বাদামী দাগ ও ক্যানসার সৃষ্টি করতে পারে।

* বেশি ঘুমানো: শীতকালে মানুষ বেশি ঘুমাতে চায় এটা জানার জন্য গবেষণার প্রয়োজন নেই, আশপাশের মানুষকে পর্যবেক্ষণ করলেই বোঝা যায়। কিন্তু শীতে বাড়তি ঘুমে উপকার নাকি অপকার হচ্ছে, তা জানতে এক গবেষণায় দেখা গেছে, শীতকালের বাড়তি ঘুম উপকারের চেয়ে ক্ষতিই বেশি করে। স্লিপ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অতিরিক্ত ঘুম বিষণ্নতার ঝুঁকি বাড়ায়। কিছু গবেষণা বলছে, প্রতিরাতে ৮ ঘণ্টার চেয়ে বেশি ঘুমালে স্ট্রোক, স্থূলতা ও টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়তে পারে।

* গরম পানিতে দীর্ঘসময় গোসল করা: শীতকালে অনেকেই দীর্ঘসময় ধরে বেশি গরম পানিতে গোসল করে থাকেন, যা ত্বকের জন্য ভালো নয়। বেশি গরম পানিতে গোসল করলে ত্বক দ্রুত শুকিয়ে যায়। শুষ্ক ত্বকে চুলকানি ও অস্বস্তি হয়। শুষ্কতা বেড়ে গেলে ত্বক ফেটে যায়। তাই শীতকালে ত্বকের ক্ষতি এড়াতে অতি গরম নয়, কুসুম গরম পানিতে গোসল করুন। গোসলের পর শরীর তোয়ালে দিয়ে হালকা মুছে নিয়ে সঙ্গে সঙ্গে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

তথ্যসূত্র: হেলথ লাইন

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!