1. nirjoncomputer@gmail.com : Alamgir Jony : Alamgir Jony
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২০, ১১:০৭ অপরাহ্ন

কাঁচা চামড়া রপ্তানি নিয়ে শঙ্কায় ব‌্যবসায়ীরা

  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০
  • ২৭ বার পড়া হয়েছে

অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক : কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়া রপ্তানির যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার, তার বাস্তবায়ন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্ট খাতের ব‌্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, করোনার কারণে যেখানে প্রক্রিয়াজাত চামড়ারই চাহিদা নেই কোথাও, সেখানে লবণজাত কাঁচা চামড়া কেনার আগ্রহ কোনো দেশ দেখাবে না। এর ফলে এই উদ্যোগ শুধু বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তেই সীমাবদ্ধ থাকবে বলেও তারা মনে করেন।

গত বুধবার (২৯ জুলাই) বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে ট্যানারি মালিকরা বলছেন, সরকার রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাদের ধারণা—বাণিজ্য মন্ত্রণালয় শেষ পর্যন্ত এই সিদ্ধান্তে অটুট থাকবে। কারণ ট্যানারি মূল উপকরণ হলো চামড়া। চামড়া প্রক্রিয়াজাতের মাধ্যমে চামড়াজাত পণ্য তৈরি হয়। এরপর তা রপ্তানি হলে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আসার সম্ভাবনা তৈরি হয়। সেই চামড়াই যদি চলে যায়, তাহলে ট্যানারিগুলোকে লোকসান গুনতে হবে বলেও তারা মনে করেন।

তবে, কাঁচা চামড়ার ব্যবসায়ীরা বলছেন, চামড়া খাতে ট্যানারি মালিকদের একচেটিয়া মুনাফার পথ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত খারাপ হয়নি। তবে, করোনার কারণে সময়োপযোগীও হয়নি। আড়ৎদাররা মনে করছেন, এতে কোরবানির চামড়ার দাম বাড়তে পারে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শাহীন আহমেদ বলেন, ‘দেশে চামড়ার বাজারকে স্থিতিশীল রাখতে এটা করা হয়েছে। কিন্তু বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এই সিদ্ধান্ত অবাস্তব। এই উদ‌্যোগ বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না।’ তিনি বলেন, ‘কে রপ্তানি করবে, কোন দেশে করবে? গোটা বিশ্বই তো মন্দার শিকার। ’

অভিন্ন মত জানালেন বাংলাদেশ ফিনিশড লেদার, লেদারগুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ মাহিনও। তিনি বলেন, ‘বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বলেছে কোরবানির পশুর চামড়া ঘিরে দেশের বাজার পরিস্থিতি অস্থিরতা দেখা দিলে রপ্তানির অনুমোদন দেবে। সেই অর্থে সরকারের এই উদ্যোগ দেশের বাজারকে যদি শান্ত রাখতে সহায়ক হয়, তাহলে বলবো, ঠিক আছে। কিন্তু বৈশ্বিক পরিস্থিতি একদম অনুকূলে নেই। তাই রপ্তানি উদ্যোগ ফলপ্রসূ হবে না।’

বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব মো. রবিউল আলম বলেন, ‘আমরা অনেক বছর ধরে কাঁচা চামড়া রপ্তানির অনুমতি চেয়ে আসছি। তখন সরকার অনুমোদন দেয়নি। বিশ্বব‌্যাপী এখন অস্থিরতা চলছে। চাহিদা ও দাম—দুই-ই এখন কমে গেছে। ইউরোপ দেশগুলো ও চীনের বাজার বন্ধ। এই পরিস্থিতিতে চামড়া রপ্তানির অনুমতি দিলে কী লাভ? এই অসময়ে ক্রাস্ট ও ফিনিশড লেদারেরই যেখানে চাহিদা নেই, সেখানে লবণজাত চামড়া তো কেউ নেবে না।

উল্লেখ্য, কাঁচা চামড়া রপ্তানির জন‌্য প্রয়োজনীয় সুপারিশ চেয়ে গত বুধবার (২৯ জুলাই) ১২ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!