1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন

বান্দরবানে তিন উপজেলায় সব ধরণের যান চলাচল বন্ধ

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

বান্দরবান : বান্দরবান জেলা সদর থেকে রোয়াংছড়ি, রুমা ও থানছি এই তিন উপজেলায় সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। ওই রুটে যান চলাচল বন্ধ হয়ে ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ যাত্রীরা।

রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারী) সকাল থেকে বান্দরবান জেলা সদর থেকে কোন যানবাহন স্টেশন ছেড়ে যায়নি এবং উপজেলা থেকেও কোন বাস স্টেশন ছেড়ে জেলা শহরে আসেনি।

নব্য সশস্ত্র সংগঠন কুকেচিন আর্মি হুমকিতে জেলা ও উপজেলা বাস ও জীপ স্টেশনের লাইনম্যানদের বরাতে বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করতে পেরেছেন বান্দরবান-রোয়াংছড়ি-রুমা-থানছি মোটরযান পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরুল আলম।

তিনি জানান, সকাল বান্দরবান থেকে বাঘমারা ও রোয়াংছড়ি বাস চলাচল স্বাভাবিক আছে। কিন্তু রুমা ও থানছি স্টেশন থেকে সকাল হতে কোন বাস ছেড়ে আসেনি।

কেন আসেনি প্রশ্ন করা হলে লাইনম্যানদের বরাতে তিনি বলেন, কুকিচিন ন্যাশনাল আর্মি (কেএনএফ) বাস না চালানোর নিষেধ করেছে তাই বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। রুমা ও থানচি স্টেশনে কোন গাড়ি না পেয়ে ভোগান্তি কথা বলেন থুইম্রাচিং মারমা ও প্রদীপ তচঙ্গ্যা।

তারা বলেন, সকাল থেকে বসে আছি স্টেশনে। নিজ গন্তব্য যাবো বলে বিভিন্ন মালামাল আর বাচ্চা নিয়ে স্টেশনে হাজির হয়েছি। শুনেচ্ছি কেএনএফ হুমকি কারণে বাসে মালিক পক্ষ থেকে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে। তাছাড়া শত শত সাধারণ যাত্রী পাশাপাশি পর্যটকরাও বাসের জন্য দাঁড়িয়ে আছে স্টেশনে ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

এদিকে আজ সকালে পাহাড়ে নতুন সশস্ত্র সংগঠন কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) সদস্য কর্তৃক রুমা লাইনম্যান লুপ্রু (৫৩) মারমাকে মারধরে অভিযোগ ওঠেছে। এরপর তারা (কেএনএফ) হুমকি দেয়, ওই রুটে সব ধরনে যান চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখতে বলে। তারপর থেকে বান্দরবানের থানচি, রুমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলায় সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রাখে মোটরযান পরিবহন মালিক সমিতি।

এ ব্যাপারে রুমা উপজেলা চেয়ারম্যান উহ্লা চিং মারমা জানান, তার ছোটভাই লুপ্রু (৫৩) মারমা নামে দীর্ঘদিন ধরে রুমা বাস স্টেশনের লাইনম্যান হিসেবে কর্মরত আছেন। আজ সকালে বাড়ি থেকে বাস স্টেশনে যাওয়ার সময় পলিকা পাড়া শ্বশান এলাকায় কুকিচিন ন্যাশনাল আর্মী (কেএনএন) সদস্যরা তার ভাই লুপ্রুকে ধরে নিয়ে হামলা করে আহত করেছে। প্রায় আধা ঘন্টার মারধর করে ছেড়ে দেয়া হয়। লুপ্রুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

রুমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ২নং রুমা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শৈমং মারমা (শৈবং) বলেন, রুমায় এখন রাস্তায় রাস্তায় কুকিচিন আর্মির সদস্যরা টহল দিচ্ছে। মানুষজনকে হুমকী ও মারধর করছে। গাড়ি না চালানোর জন্য হুমকী দিচ্ছে। এ কারনে রুমা থেকে বান্দরবান কোন বাস ও যানবাহন ছাড়েনি।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শাহজাহান জানান, রুমা থেকে বান্দরবান সকাল থেকে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে বলে শুনেছি। এরপর থেকে আইনশৃংখলা বাহিনীর টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!