1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

অনিয়ম: ‘সরানো হলো’ বিমানের এমডিকে

  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই, ২০২২

বাংলার কাগজ ডেস্ক : মাত্র এক বছর চার মাসের মাথায় বিমান বাংলাদেশে এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ড. আবু সালেহ্ মোস্তফা কামালকে। যদিও প্রজ্ঞাপনে বিমানের এমডির বদলির কারণ ‘জনস্বার্থ’ উল্লেখ করা হলেও অনেকেই বলছেন, সাম্প্রতিক বিমানের নানা ‘অনিয়ম’র কারণে বদলি করা হয়েছে তাকে।

বুধবার (১৩ জুলাই) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে বদলি করা হয়েছে। তাকে পাঠানো হয়েছে সমাজসেবা অধিদপ্তরের ডিজি হিসেবে। আর বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসাবে নতুন দায়িত্ব পেয়েছেন অতিরিক্ত সচিব মো. যাহিদ হোসেন।

বিমানের দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র জানায়, চার কোটি টাকারও বেশি সরকারি টাকা খরচ করে কানাডার টরন্টোতে পরীক্ষামূলক বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনা করা, পাইলট নিয়োগে নানা রকম অনিয়ম, পরিকল্পনা অনুযায়ী আমেরিকার নিউইয়র্ক ও কানাডার টরন্টো ফ্লাইট পরিচালনা করতে না পারা, বিভিন্ন সময়ে দুর্নীতির অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া বিমানের কর্মকর্তাদের চাকরিতে বহাল করার মতো বিতর্কিত বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বিমানের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. আবু সালেহ্ মোস্তফা কামাল।

তাকে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব থেকে সরানোর অনেকগুলো কারণ থাকলেও মূল কারণ ছিল দুটি। কানাডার টরন্টো রুটে বারবার বিমানের সময়সূচির পরিবর্তন আনা এবং পাইলট নিয়োগে অনিয়ম বলে জানান বিমানের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সূত্র।

অন্যদিকে, বিমানের একটি সূত্রের মতে- বিমানের সাবেক এই এমডি নিয়ম কানুনের ক্ষেত্রে বেশ শৃঙ্খল ছিলেন। পাইলট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ক্যাপ্টেন মাহবুবকে চাকরিচ্যুত করার মতো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তও কঠোরভাবে তিনি নিয়েছেন। বিমানে ‘ক্যান্সারের মতো পচনধরা অংশ কেটে ফেলা’র ঘোষণার মতো কঠোর সিদ্ধান্তের কারণে এমডিকে সরিয়ে দিতে একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছিল। গত কয়েক দিনে বিমানবন্দরে একের পর এক দুর্ঘটনার ঘটাও সাবেক এই এমডির জন্য ‘গোঁদের ওপর বিষফোড়া’র মতো কাজ করেছে।

বদলির প্রকৃত কারণ জানতে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জনসংযোগ বিভাগের যোগাযোগ করা হলেও তারা কোনও তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। আর নিজে হজে থাকার কারণে কথা বলা যায়নি বিমানের সাবেক এমডি ড. আবু সালেহ্ মোস্তফা কামালের সঙ্গে।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব নেওয়ার আগে ড. আবু সালেহ্‌ মোস্তফা কামাল তখন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে অতিরিক্ত সচিব পদে কর্মরত ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক (সম্মান) এবং প্রথম শ্রেণিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। পিএইচডি করেন মাশরুমের সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াকরণসহ ফুড সেফটির ওপর।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!