1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন

৩০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার আমদানি করবে সরকার

  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২

বাংলার কাগজ ডেস্ক : দেশে কৃষি খাতের চাহিদা মেটাতে রাষ্ট্রীয় চুক্তির মাধ্যমে সৌদি আরবের সাবিক এগ্রি-নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানি থেকে চতুর্থ লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার আমদানি করবে শিল্প মন্ত্রণালয়। এতে মোট ব্যয় হবে ১৫১ কোটি ৮৮ লাখ ৩৩ হাজার টাকা।

সূত্র জানায়, শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাষ্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) থেকে ক্রয় প্রস্তাবটি গত ২ আগস্ট পাঠানো হয়। কৃষি মন্ত্রণালয় ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের জন্য ইউরিয়া সারের চাহিদা ২৬ লাখ মেট্রিক টন এবং নিরাপত্তা মজুত কমপক্ষে ৮ লাখ মেট্রিক টনসহ মোট ৩৪ মেট্রিক টন নির্ধারন করে। উক্ত চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে বিসিআইসি কর্তৃক প্রণীত ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বার্ষিক সংগ্রহ পরিকল্পনা গত ২২ মে শিল্প মন্ত্রণালয় অনুমোদন দেয়।

সূত্র জানায়, ২০২২-২০২৩ অর্থবছর সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠানটি থেকে ফার্ম ৪ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন এবং জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য অপশনাল ১ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টনসহ ৬ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক ইউরিয়া সার আমদানির পরিকল্পনা গ্রহণ  করা হয়। সোদি আরব থেকে জি-টু-জি চুক্তির আওতায় ২০০৭ থেকে ইউরিয়া সার আমদানির পরিকল্পনা গ্রহণ  করা হয়।  তারই ধারাবাহিকতায় প্রতি বছর সংশোধনী চুক্তি স্বাক্ষর করে প্রতিষ্ঠানটি থেকে ইউরিয়া সার আমদানি করা হচ্ছে। গত ৭ এপ্রিল অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় অনুমোদনক্রমে ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে সার আমদানির জন্য সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চুক্তির মেয়াদ ২০২২ সালের ১ জুন থেকে ২০২৩ সালের ৩১ মে পর্যন্ত বলবৎ আছে।

সূত্র জানায়, ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে ইউরিয়া সারের সংগ্রহ পরিকল্পনার মধ্যে কাফকো বাংলাদেশ থেকে ৬ লাখ মেট্রিক টন মুনতাজাত, কাতার থেকে ৪ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন, সাবিক, সৌদি আরব থেকে ৪ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিশন থেকে ২ লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টন। অর্থাৎ এই চার প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ১৭ লাখ ৭০ হাজার মেট্রিক টন সার আমদানি কর হবে।

সূত্র জানায়, ২০২২-২০২৩ অর্থবছর সাবিক এগ্রি-নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানি থেকে ২০২২ সালের ১ জুন থেকে ২০২৩ সালের ৩১ মে সময়ে ৩০ হাজার মেট্রিক টনের ১৬টি লটে ফার্ম ৪ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন এবং অপমনাল ১ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার আমদানি করা হবে।

সূত্র জানায়, সৌদি আর এর সঙ্গে পারস্পরিক আলোচনা ও সমঝোতার ভিত্তিতে ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের ৪র্থ লটের ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার আমদানির লেক্যান নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৮-২২ আগস্ট। চুক্তি অনুযায়ী ইউরিয়া সারের দর সংক্রান্ত ইন্টারন্যাশনাল ৩টি জার্নাল আইসিআইএস দ্য মার্কেট, আরগুজ নাইট্রোজেন (এফএমবি) এবং আইএইচএস মার্কেট নাইট্রোজেন রিপোর্ট (ফার্টিকন)-এ প্রকাশিত মিডলইস্ট এফওবি/এরাবিয়ান গাল্ফ এফওবি বাল্ক দরের গড়ের ভিত্তিতে ইউরিয়া সারের একক দর নির্ধারিত হবে। চুক্তি অনুযায়ী ২০২২ সালের ২৮ জুলাই বুলেটিনে প্রকাশিত দর চতুর্থ লটের জন্য প্রযোজ্য হবে। সে প্রেক্ষিতে সৌদি আরব থেকে চতুর্থ লটের জন্য ৩টি জার্নালের গড় দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৩৪.৩৩ মার্কিন ডলার।

সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তির শর্ত অনুযায়ী এই দর বিসিআইসি প্রত্যয়ন করেছে। চুক্তি অনুযায়ী সৌদি আরবের প্রতিষ্ঠানটির দেওয়া প্রতি মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সারের দর এফওবি আল জুবাইল বন্দর ৫৩৪.৩৩ মার্কিন ডলার হিসেবে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সারের মোট দাম এক কোটি ৬০ লাখ ২৯ হাজার ৯০০ মার্কিন ডলার। গত ৩১ জুলাই মার্কিন ডলারের বিনিময় হার বাংলাদেশি মুদ্রায় ব্যয় হবে ১৫১ কোটি ৮৮ লাখ ৩৩ হাজার টাকা। এর আগে ৩য় লটে বাল্ব গ্র্যানুলার ইউরিয়া সারের প্রতি মেট্রিক টন সারের এফওবি দর ছিল ৫৬০.৮৩ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ চতুর্থ লটে প্রতি মেট্রিক টন সারের দাম ২৬.৫০ ডলার কমে আমদানি করা হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!