1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
নালিতাবাড়ীতে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করায় যুবক গ্রেফতার নীলফামারীতে বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ ডোমারে ৭০ পিচ টাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ ২ যুবক গ্রেফতার নীলফামারীতে “এক্সেল রোড কন্ট্রোল স্টেশন” স্থাপনের প্রতিবাদে মানববন্ধন  বান্দরবানে সেনাবাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে কেএনএফ সন্ত্রাসী নিহত রুমায় কেএনএফ আতঙ্কে বাড়ি ছাড়ছেন গ্রামবাসী বান্দরবানে বিস্তীর্ণ মাঠ জুড়ে সরিষার আবাদ নিপাহ ভাইরাসে মারা গেছেন ৫ জন, আক্রান্ত ৮: স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকারকে বিদ্যুৎ, গ্যাস ও তেলের দাম বাড়ানোর ক্ষমতা দিয়ে বিল পাস শর্ত সাপেক্ষে হিন্দি সিনেমা আমদানির পক্ষে: নিপুণ

কলাপাড়ায় কাঠের সেতু ভেঙ্গে যাওয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান ব্যাহত

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২৩

রাসেল কবির মুরাদ, কলাপাড়া (পটুয়াখালী) : কলাপাড়ায় ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের কাঠের সেতু ভেঙ্গে বিদ্যালয় থেকে পাঠদান বঞ্চিত হচ্ছে শতাধিক প্রাথমিক শিক্ষার্থী, যাতায়াত ব্যবস্থা নিয়ে দুর্ভোগে পড়ছে ৪গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ। সেতু নির্মাণের টেন্ডারের এক বছর পেরিয়ে গেলেও দেখা মিলছে না ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের। নতুন সেতু নির্মাণ করে দুর্ভোগ লাঘবের দাবি অভিভাবক ও এলাকাবাসীর।

শনিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ৪নং মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের (চরপাড়া) ও ১১নং ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের ( রসুলপুর) ৩ যুগেরও বেশি সময় ধরে একমাত্র ভরসা একটি ভাঙ্গা কাঠের সেতু। দুই ইউনিয়নের শিক্ষা ও বানিজ্যিক মৈত্রী সংযোগ স্থাপন করে আসছে এই কাঠের সেতুটি। যার বেহাল দশায় প্রতিনিয়ত স্বীকার হতে হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিশু শিক্ষার্থীসহ প্রায় পাঁচ শতাধিক মানুষের। এই দুই ইউনিয়নের বাণিজ্যিক ও শিক্ষা ব্যবস্থা পরস্পরের অবিচ্ছেদ্য অংশ।

মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের চরপাড়া ও পার্শ্ববর্তী গ্রামের প্রায় শতাধিক শিশুর প্রাথমিক শিক্ষার জন্য নির্ভশীল হতে হয় ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের রসুলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ওই বিদ্যালয়েরর সাথে একমাত্র সংযোগ এই ভাঙ্গা কাঠের সেতুটি। কিন্তু দু:খের বিষয় এই কাঠের সেতুন গুরুত্ব কোন কর্তৃপক্ষেরই দৃষ্টি গোচর হয় না। সেতুটি পার হয়ে প্রতিদিন শতাধিক শিক্ষার্থীদের যেতে হচ্ছে বিদ্যালয়ে। সামান্য বৃষ্টি হলে দুর্ভোগের আর অন্ত থাকে না। ইতোপূর্বে এ সেতু পার হতে গিয়ে দুর্ঘটনার স্বীকার হতে হয়েছে শিশু শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষের। প্রতিদিনই শিশু শিক্ষার্থীদের কাঁধে বই নিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পাড় হতে হয় এ কাঠের সেতুটি। যা ১৫দিন আগেই সম্পূর্ণভাবে ভেঙ্গে গেছে। ফলে নতুন বছরের শুরুতেই শিক্ষার্থীরা বিদ্যালেয়ের পাঠদান থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এ বিষয়ে ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য মো. শাহাবুদ্দীন বলেন, চাঁদা তুলে ইতোপূর্বে মেরামত করা হয়েছে একাধিকবার। সেতুটি ভেঙ্গে পড়ায় যেমনি বিদ্যালয়ের পাঠদান বিচ্ছিন্ন শিক্ষার্থী, তেমনি বাণিজ্যিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তেগাছিয়া, ডালবুগঞ্জ ও মহিপুরের হাট। এ কাঠের সেতুটি ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে প্রতিবছরই সংস্কার করা হয়েছে। উক্ত সেতু নির্মাণের টেন্ডার হয়েছে শোনা গেলেও দেখা মিলছে না ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের।

কলাপাড়া উপজেলা প্রকৌশলী ফয়সাল বারী জানান, ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের রসুলপুরে কাঠের সেতুটি ভেঙ্গে যাওয়ায় অনুর্ধ ১০০ মিটার ব্রীজের জন্য ডিপিপিতে অন্তর্ভূক্ত করানো হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে নতুন একটি ব্রীজের জন্য প্রস্তাব ইতিমধ্যেই পাঠানো হয়েছে। শীঘ্রই একটি ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!