1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:০৯ অপরাহ্ন

বিভেদের দেয়াল ভেঙে ঐক্যের দুর্গ গড়তে শেখ হাসিনার আহ্বান

  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

রাজনীতি ডেস্ক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র আর দলীয় প্রার্থীদের মধ্যে যে বিভেদের দেয়াল তৈরি হয়েছিল, সেটি ভেঙে ঐক্যের দুর্গ গড়ে তুলতে দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে এবং দেশের গণতন্ত্র বাঁচাতে এই কৌশল নিতে হয়েছিল, জানিয়ে তিনি বলেন, এখন সময় এসেছে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে মানুষের ভাগ্য গড়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় এ কথা বলেন তিনি।

প্রতিটি জেলা থেকে আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতারা বর্ধিত সভায় অংশ নেন। প্রতিটি বিভাগের জন্য আলাদা জায়গা বরাদ্দ রাখা হয়।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেন, ‘সংগঠনই হচ্ছে মূল শক্তি। এবারের নির্বাচনে দলীয় আর স্বতন্ত্র নির্বাচন করতে গিয়ে অনেকের মনকষাকষি বা কিছু হয়েছে। যেটা হয়ে গেছে, সেটা এখন ভুলে যেতে হবে। সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। জনগণের ওপর বিশ্বাস-আস্থা রাখতে হবে। আর যদি কোথাও কোনো সমস্যা দেখা দেয়, সেটার সমাধান কেন্দ্রীয় কমিটি করবে, আমরা আছি।’

‘নিজেদের মধ্যে কোনো আত্মঘাতী সংঘাত যেন না হয়। সেদিকে সকলকে সজাগ থাকতে হবে। এর ওপর দোষ, ওর ওপর দোষ; এই দোষারোপ করার কোনো অর্থ হয় না। এবার নৌকার জোয়ার ছিল। সেই জোয়ারে যদি কেউ দাঁড়াতে না পারে, সেটা কার দোষ। এটা মাথায় রাখতে হবে। দোষারোপ করে কোনো লাভ নেই।’

তিনি বলেন, এবার নির্বাচন যদি উন্মুক্ত না হতো, তাহলে এই নির্বাচনকে শুধু প্রশ্নবিদ্ধ করা না, বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে হরণ করা হতো। বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে যেখানে আমরা এগিয়ে গিয়েছি, সেই অগ্রগতিটাও নস্যাৎ হয়ে যেত।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সমালোচকদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সভাপতি বলেন, এবারের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়েছে। যারা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চায় এবং বলে, নির্বাচন অবাধ হয়নি, তাদের কাছে আমার প্রশ্ন—সুস্পষ্টভাবে বলতে হবে, কী কী ক্ষেত্র দেখে তারা বলছে যে, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়নি। সেটা তাদের বলতে হবে। সেটা না বলে তারা একইভাবে বলে যাচ্ছে নির্বাচন হয়েছে কিন্তু অবাধ হয়নি।

‘দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এটা বলা হয়। যেকোনো দেশেই বলুক, তাদের কাছে আমার প্রশ্ন—কোথায় সমস্যা, তাদের বলতে হবে। পৃথিবীর বহু উন্নত দেশেও নির্বাচন হয়েছে। সেই নির্বাচনও বিরোধীর কাছে গ্রহণযোগ্যতা পায়নি। নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় এমনও হয়েছে খনোখুনিও হয়ে গেছে। এতটুকু বলতে পারি, বাংলাদেশে নির্বাচনটা অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে।’

দলের প্রার্থীদের জন্য নির্বাচন উন্মুক্ত করে দেওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ভোটাররা আসবে, যাকে খুশি তাকে ভোট দেবে। আজকে এভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন হয়েছে বলেই মুখে অনেকে বললেও নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারছে না। এটা আমাদের সকল নেতাকর্মীদের মনে রাখতে হবে।

বিশেষ বর্ধিত সভায় আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটি, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, জেলা/মহানগর ও উপজেলা/থানা/পৌর (জেলা সদরে অবস্থিত পৌরসভা) আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, জাতীয় সংসদের দলীয় ও স্বতন্ত্র সদস্য, জেলা পরিষদ ও উপজেলা পরিষদের দলীয় চেয়ারম্যানরা, সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার দলীয় মেয়র এবং সহযোগী সংগঠনসমূহের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত রয়েছেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!