1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

শ্রীবরদীতে স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর না দেওয়ায় বেড়া দিয়ে বসতবাড়ি অবরুদ্ধ

  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২১

শ্রীবরদী (শেরপুর) : শ্রীবরদীতে গ্রাম্য বিচারে বৈঠকে স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর না দেওয়ায় বাঁশ দিয়ে বসতবাড়ির সামনে বেড়া দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার তাতিহাটী ইউনিয়নের ঝালুপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী ঝালুপাড়া গ্রামের মৃত ময়দান আলীর ছেলে মমতাজ আলী (৫৫) ও তার পরিবার প্রায় এক সপ্তাহ থেকে গরু ছাগল গোয়াল ঘর থেকে বাহির করতে পারছেন না বলে অভিযোগ তুলেছেন।

মমতাজ আলী জানান, ঝালুপাড়া গ্রামের মৃত মকবুল মুন্সীর ছেলে মনি মিয়া (৪০) গংদের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য ওই গ্রামের বাছেদ আলীসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ গ্রাম্য আপোষ-মিমাংসার বৈঠকে বসেন। বৈঠকে তিনশ টাকার ননজুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর চায় কালাম, ছালুম উদ্দিন, কাপাসু, বাছেদ আলীসহ উপস্থিত ব্যক্তিরা। আমি স্বাক্ষর না দেওয়ায় বৈঠক ভেঙ্গে দেওয়া হয়।

এরপর গত শনিবার সকালে মনি মিয়া (৪০) শাহজাহান (৫০) জালাল মিয়া (৪০) ও ইমান আলী (৪৫)সহ প্রায় ৩০-৪০ জন এসে আমার বসতবাড়ির সামনে বাঁশের বেড়া দিয়ে আমাদেরকে অবরুদ্ধ করে। ফলে আমি প্রায় এক সপ্তাহ অবরুদ্ধ আছি।

এ ব্যাপারে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের মধ্যে বাছেদ আলী বলেন, মমতাজ আলী আমার চাচা। জমি নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবত বিরোধ চলে আসছে। বিষয়টি আমরা পারিবারিকভাবে বসে মিমাংসা করেছিলাম। আপোষ নামায় মমতাজ আলী স্বাক্ষর না করায় বিরোধটি মিমাংসা করা সম্ভব হয়নি।

অভিযুক্ত মনির মিয়া বলেন, এলাকার লোকজনসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গগণ আপোষের জন্য তার নিকট স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর চেয়েছিল। এছাড়াও তার গরু বাছুর আমাদের ধান ক্ষেত নষ্ট করার জন্য বাঁশ দিয়ে বেড়া দিয়েছি।

তাতিহাটী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ছামিউল হক বলেন, আমি গত শনিবার (২৩ অক্টোবর) সকালে বাঁশ দিয়ে বেড়া দেওয়া দেখে এসেছি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!