1. monirsherpur1981@gmail.com : banglar kagoj : banglar kagoj
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:২৫ পূর্বাহ্ন

‘শনিবার বিকেল’ প্রসঙ্গে সেন্সর বোর্ডের সমালোচনায় জয়া

  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২

বিনোদন ডেস্ক  | নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‌‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটি তিন বছর ধরে পড়ে রয়েছে আপিল বোর্ডে। সিনেমাটি কেন ছাড়পত্র পাবে না, তা নিয়ে এখনও কোনো বক্তব্য দেয়নি কেবিনেট সেক্রেটারির নেতৃত্বাধীন চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের আপিল বিভাগ।

সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন ফারুকী। এরপর এই নির্মাতার স্ত্রী এবং সিনেমাটির অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশাও বিষয়টি নিয়ে স্ট্যাটাস দেন। এরপরই সিনেমাটি মুক্তির দাবিতে সামাজিকমাধ্যমে ঝড় তুলেছেন নির্মাতা, অভিনয়শিল্পী থেকে শুরু করে আরো অনেকে।

এবার ‘শনিবার বিকেল’-এর বিষয়টি নিয়ে চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সমালোচনা করলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। বুধবার (১০ আগস্ট) সন্ধ্যায় এক স্ট্যাটাসে নিজের মন্তব্য তুলে ধরেছেন এই অভিনেত্রী।

জয়া আহসান লেখেন, পৃথিবীর নানা দেশে যখন সেন্সর বোর্ড নামের বালাইটা উঠে যাচ্ছে, আমাদের দেশে সেটা তখন ফাঁসির রজ্জুর মতো চলচ্চিত্রের গলায় চেপে বসছে। এর সর্বশেষ শিকার এখন মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘শনিবার বিকেল’।

তিনি লেখেন, কোনো চলচ্চিত্রের কাহিনী কী হবে, তারও কি এখন প্রেসক্রিপশন নিয়ে আসতে হবে? চলচ্চিত্রের বিষয় আকাশের তলায় মাটির পৃথিবীর যেকোনো কিছু। চূড়ান্ত কল্পনা, নিরেট বাস্তব, বাস্তব থেকে অনুপ্রাণিত কল্পনা। ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাতে হোলি আর্টিজানের শোচনীয় ঘটনাটির ছায়া আছে বলে? আসলেই আছে কিনা আমার জানা নেই। যদি থাকেও, তাহলেই বা ছবিটা আটকে দেওয়ার যুক্তি কি?

এই অভিনেত্রী আরো লেখেন, হোলি আর্টিজান ঘটেনি? আমাদের মন থেকে ধুয়েমুছে গেছে? সত্যি বলতে কী, এই ঘটনা কখনোই আমাদের মন থেকে মুছে যেতে পারে না। মুছে যেতে দেওয়া যায়ও না। যে ঘটনার পুনরাবৃত্তি আমরা মোটেও চাই না, আমাদের ছেলে-মেয়েদের সামনে থেকে যে পথ চিরকালের জন্য অবরুদ্ধ করে রাখতে চাই, হোলি আর্টিজানের ঘটনা তার জোরালো সতর্কঘণ্টা হিসেবে মন থেকে মনে বাজিয়ে যেতে হবে।

চলচ্চিত্র হচ্ছে ঘুম ভাঙানোর ঘণ্টা এমনটাই মনে করেন জয়া। তিনি লেখেন, ঘণ্টা বাজিয়ে ঘুম থেকে আমাদের মনটাকে জাগিয়ে তোলা তো চলচ্চিত্রেরই একটা কাজ।

সবশেষ এই অভিনেত্রী তার স্ট্যাটাসে লেখেন, আমরা চলচ্চিত্রের মুক্তি চাই, সব শিল্পের মুক্তি চাই। কারণ আমরা মানুষের মুক্তি চাই।

জয়া আহসানকে সর্বশেষ দেখা গেছে ‘ঝরা পালক’ নামের একটি সিনেমায়। গত ২৪ জুন এটি মুক্তি পায় পশ্চিমবঙ্গে। সিনেমাটি নির্মিত হয় কবি জীবনানন্দ দাশের জীবনের ঘটনা অবলম্বনে

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!