1. nirjoncomputer@gmail.com : Alamgir Jony : Alamgir Jony
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪৮ অপরাহ্ন

নালিতাবাড়ীতে শ্বশুরের লোলুপ দৃষ্টিতে কপাল পুড়ছে পুত্রবধূর

  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২০

নালিতাবাড়ী (শেরপুর): শ্বশুরের লোলুপ দৃষ্টির ফলে সংসার ভাঙতে চলেছে কিশোরী এক নববধূর। অপকর্ম করতে চাওয়া শ্বশুরের হাত থেকে পালিয়ে বাঁচলেও ঘটনা জানাজানি হওয়ায় নিজের সংসারের স্থায়িত্ব নিয়ে সংশয়ে ওই ভুক্তভোগী। স্ত্রীর সাথে সংসারের স্থায়িত্ব নিয়ে শঙ্কিত ভাগ্যহত ছেলেটিও। গত ১১ অক্টোবর রবিবার এমন ঘটনা ঘটে শেরপুরের নালিতাবাড়ীর শহরতলী গ্রাম নিজপাড়ায়।
ভুক্তভোগী কিশোরী ওই নববধূ, তার স্বামী ও অন্যান্য সূত্র জানায়, শহরতলী গ্রাম নিজপাড়ার কৃষক সাইফুল ইসলামের প্রথম স্ত্রী মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেললে তাকে তালাক দেন সাইফুল। তখন দুধের শিশু হানিফকে সাইফুলের সৎ মা লালন-পালন করে বড় করেন। প্রায় বছর খানেক আগে হানিফকে তার সৎ দাদী ও ফুফুরা মিলে নকলার ধনাকুশা বিলপাড় এলাকায় জনৈক কিশোরীকে দিয়ে বিয়ে করান। ঘটনার দিন রবিবার (১১ অক্টোবর) সন্ধ্যার পরপর বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে শ্বশুর সাইফুল পুত্রবধূকে ডেকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান। পরে প্রথমে বাড়ির গেইট ও পরে ঘরে ডেকে নিয়ে ঘরের দরজা আটকে দেন। একপর্যায়ে পুত্রবধূকে ঝাপটে ধরে বিছানায় নেওয়ার চেষ্টা করেন এবং কুরুচিপূর্ণ কথা বলেন। এসময় পুত্রবধূ ওই কিশোরী শ্বশুরের কাছ থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে দরজা খোলে দৌড়ে বেরিয়ে আসে।
পরদিন হানিফ তার স্ত্রীকে বাড়ি রেখে মাঠে কাজে যেতে চাইলে স্ত্রী একা বাড়ি থাকতে আপত্তি করে। একপর্যায়ে বিষয়টি খোলে বললে বাড়ির অন্যদের কান পর্যন্ত চলে যায়। খবর পেয়ে ওই কিশোরীর পিতা কিশোরীকে নিয়ে বাড়ি চলে যায়। বিষয়টি সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত ওই কিশোরী বধূকে স্বামীর বাড়ি পাঠাতে আপত্তি তোলে হানিফের শ্বশুরালয়ের স্বজনেরা। বিষয়টি লোকমুখে প্রচার হয়ে পড়ায় বর্তমানে লোকলজ্জার ভয়ে সংসার টেকা না টেকা নিয়ে উভয় পরিবারে সংশয় দেখা দিয়েছে।
ভুক্তভোগী কিশোরী গৃহবধূ জানায়, খারাপ উদ্দেশ্যেই শ্বশুর তাকে তার বাড়ি থেকে শ্বশুরের একা বাড়িতে ডেকে নিয়ে প্রথমে গেইট ও পরে দরজা আটকে ঝাপটে ধরে। এখন বিষয়টি আশপাশে জানাজানি হয়ে যাওয়ায় সে মুখ দেখাতে পারছে না। শ্বশুর এমন হলে সেখানে সংসার করবে কিভাবে- এমন প্রশ্ন তোলে ওই কিশোরী সংসার করা না করা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে। অভিযুক্ত সাইফুলের ছেলে হানিফ পিতার এমন আচরণে অসন্তোষ প্রকাশ করে পিতার বিচার দাবী করে।
এ বিষয়ে খোঁজ নিতে গেলে অভিযুক্ত সাইফুল এলাকাবাসীর সম্মুখে জানায়, সে পুত্রবধূকে আদর করে নিজের মেয়ের মতো ভেবে ঝাপটে ধরে বিছানায় বসিয়েছে সংসার নিয়ে বুঝিয়ে কথা বলার জন্য। তার খালাপ কোন উদ্দেশ্য ছিল না। এসময় কথা প্রসঙ্গে পুত্রবধূর হাতে ধরার কথাও স্বীকার করে সে।

এদিকে বিষয়টি নিজপাড়া এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!