1. nirjoncomputer@gmail.com : Alamgir Jony : Alamgir Jony
  2. admin@banglarkagoj.net : admin :
  3. mehedihasanshakib06@gmail.com : mehedi sakib : mehedi sakib
শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১১:০৮ অপরাহ্ন

আমদানি করা পচা পেঁয়াজ নিয়ে বিপাকে আমদানিকারকরা

  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

দিনাজপুর: আমদানি করা পেঁয়াজ নিয়ে বিপাকে পরেছেন দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরেরর আমদানিকারকরা।

২০ থেকে ৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে এই সব পেঁয়াজ। আবার পুরো নষ্ট পেঁয়াজের ৫৫ কেজির বস্তা বিক্রি করতে হচ্ছে মাত্র ১০০ টাকায়।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) হিলি বন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক মনোয়ার হোসেন চৌধুরী এ তথ‌্য জানিয়েছেন।

মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘রপ্তানি জটিলতার কারণে গত ৫দিন পর সীমান্তে আটকে থাকা পেঁয়াজ বোঝাই ভারতীয় ট্রাকগুলো গতকাল হিলি স্থলবন্দরে প্রবেশ করে। এতোদিন ধরে সীমান্তে লোড অবস্থায় থাকায় ভ্যাপসা গরমে অধিকাংশ পেঁয়াজ পচে নষ্ট হয়ে গেছে। এ কারণে পচা পেঁয়াজ নিয়ে বিপাকে পড়েছি। এতে আমার অনেক লোকসান হবে।’

হিলি বন্দর ঘুরে দেখা গেছে, ভালো মানের পেঁয়াজ পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫৫ টাকায়। আর পচা বা নষ্ট পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজি দরে এবং একেবারে নষ্ট পেঁয়াজ ৫৫ কেজির বস্তা বিক্রি হচ্ছে মাত্র ১০০ টাকায়।

উল্লেখ‌্য, গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত সরকার অভ্যন্তরীণ বাজারে সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির অজুহাতে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এর ফলে সীমান্তে ২৫০-৩০০ পেঁয়াজ বোঝাই ভারতীয় ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় আটকা পড়ে।

এদিকে, গত ১৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ভারত সরকার শুধুমাত্র ১৩ তারিখে এলসি করা পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিলে গতকাল শনিবার সীমান্তে আটকে থাকা ১১টি ট্রাকে ২৪৬ মেট্রিকটন পেঁয়াজ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে দেশে আমদানি করা হয়। তবে সীমান্তে আটকে থাকা ১০ হাজার মেট্রিকটন পেঁয়াজের অনুমতি না দেওয়ায় আজ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ আছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2011-2020 BanglarKagoj.Net
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!